ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আদালত বর্জন বাড়লো ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০২৩
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আদালত বর্জন বাড়লো ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইনজীবীদের দাবি আদায় না হওয়ায় তৃতীয় দফায় আবারও বাড়ানো হয়েছে আদালত বর্জন কর্মসূচি।  

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) দ্বিতীয় দফায় বর্ধিত কর্মসূচির শেষ দিনে আবারও তিন দিনের জন্য আদালত বর্জন কর্মসূচি নিয়েছে জেলা আইনজীবী সমিতি।

ফলে এ কর্মসূচিটি আগামী ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত বেড়েছে।

নতুন কর্মসূচির আওতায় আগামী রোব, সোম ও মঙ্গলবার পর্যন্ত আদালতের কোনো বিচারিক কার্যক্রমে অংশ নিবেন না আইনজীবীরা। এদিকে, বৃহস্পতিবার আদালত বর্জনের ছষ্ঠ দিনে জেলা আইনজীবী সমিতি ভবনে অবস্থান নিয়ে তারা কর্মসূচি পালন করেন।

আদালত বর্জন কর্মসূচির ফলে গত ৫ জানুয়ারি থেকে মামলার শুনানি, হাজিরাসহ কোনো মামলারই কার্যক্রম পরিচালিত হয়নি। এতে প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ হাজার বিচার প্রার্থীর বিচার কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। বিচার প্রাথীরা দূর দূরান্ত থেকে আসলেও আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম না থাকায় তাদের ফিরে যেতে হয়েছে। ভুক্তভোগী বিচার প্রার্থীরা জানান, দূর দূরান্ত থেকে টাকা খরচ করে এসে আদালতে বিচারিক কার্যক্রম না থাকায় তারা হতাশ।

জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট তানভীর ভুঁইয়া জানান, কর্মসূচি চলমান রয়েছে। দাবি আদায় না হওয়ায় তৃতীয় দফায় আগামী রোব, সোম ও মঙ্গলবার পর্যন্ত আমাদের কর্মসূচি বাড়ানো হয়েছে। আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, জেলা জজ শারমিন নিগার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের-১ এর বিচারক (জেলা জজ) মোহাম্মদ ফারুক ও আদালতের নাজির মোমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ এনে তাদের অপসারণের দাবি জানিয়ে ৫ জানুয়ারি থেকে এ কর্মসূচি পালন করছেন আইনজীবীরা।

এদিকে, এজলাসে বিচারকের সঙ্গে আইনজীবীদের অশোভন আচরণের ঘটনায় ও জেলা জজসহ বিচারকের বিরুদ্ধে অশালীন স্লোগান দেওয়ায় সভাপতিসহ ২৪ জন আইনজীবীকে হাইকোর্টে তলব করেছে আদালত।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০২৩
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।