ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

ফাঁকা বিমানবন্দর সড়ক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১০৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৩
ফাঁকা বিমানবন্দর সড়ক

ঢাকা: ৫৬তম বিশ্ব ইজতেমা আজ শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) শুরু হচ্ছে। তবে, বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) ইজতেমাকে কেন্দ্র করে সড়কে সীমাহীন যানজট থাকলেও আজ তেমন যানজট নেই।

বিমানবন্দর থেকে গাজীপুর সড়ক অনেকটাই ফাঁকা।

শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) রাজধানীর উত্তরা এলাকায় অবস্থান করে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ফাঁকা সড়কের এমন দৃশ্য দেখা গেছে। কিছুক্ষণ পর-পর দু-একটি গণপরিবহন এলেও প্রায় ফাঁকা সেগুলো।

প্রভাতী বনশ্রী গাড়িচালক হোসেন আলীর সঙ্গে কথা হয়। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, কাল এ রাস্তায় প্রচুর যানজট ছিল, কিন্তু আজকের চিত্র একেবারেই ভিন্ন। সকাল থেকেই যাত্রী নেই তেমন।

কথা হয় তুরাগ পরিবহনের বাসচালক শামীম হোসেনের সঙ্গে। একই কথা বলেন তিনিও। তিনি জানান, ইজতেমাকে কেন্দ্র করে অধিকাংশ মুসল্লি গতকাল পৌঁছে যাওয়ায়, সড়কে তেমন যানজট নেই। তবে, আগামীকাল শনিবার (১৪ জানুয়ারি) যানজট বাড়তে পারে।

বলাকা পরিবহনে চেপে বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে যাচ্ছিলেন একটি দল। তারা নড়াইলের লোহাগড়া থেকে এসেছেন। কথা হয় দলটির আমির (দলপতি) মাওলানা রাশিদুল ইসলামের সঙ্গে। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, আমরা নড়াইল থেকে রাতের বাসে রওনা হয়েছিলাম। দ্রুতই পৌঁছেছি। জুমার নামাজ গিয়ে পড়ার ইচ্ছে আছে। রাস্তায় তেমন যানজট নেই আলহামদুলিল্লাহ।

মনোয়ার হোসেন নামে আরও এক যাত্রীর সঙ্গে কথা হয়, তার গন্তব্য আব্দুল্লাহপুর। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, সকাল ৯টা পর্যন্ত যাত্রাবাড়ী থেকে রওনা দিয়েছিলাম। খুব বেশি সময় লাগেনি। সড়কে যানজট নেই বললেই চলে।  

বিমানবন্দর এলাকার ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্য  বাংলানিউজকে বলেন, সকাল থেকে সড়কে আজ গাড়ির চাপ কম। এ সড়কের যাত্রীরা নির্বিঘ্নেই চলাচল করতে পারছেন।

এদিকে, বিশ্ব ইজতেমাকে কেন্দ্র করে টঙ্গী, গাজীপুরসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে বিভিন্ন ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এরমধ্যে, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ ৩০০ সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করেছে।

এছাড়াও, বিশ্ব ইজতেমাকে সামনে রেখে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে কর্মরত সব চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সব ধরনের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। ময়দানে পানি সংকট নিরসনে নতুন গভীর নলকূপ স্থাপন করা হয়েছে। ইজতেমা উপলক্ষে বিশেষ ট্রেন, বাস, ফায়ার সার্ভিস, ট্রাফিক পুলিশ, বিদ্যুৎ, তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ ব্যাপক প্রস্তুতি হাতে নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গাজীপুরের টঙ্গীতে তুরাগ নদীর তীরে আগামী ১৩, ১৪ ও ১৫ জানুয়ারি প্রথম পর্ব এবং মাঝখানে চারদিন বিরতি দিয়ে ২০, ২১ ও ২২ জানুয়ারি দ্বিতীয় পর্বে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৩
এমকে/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।