ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

মেঘনা পাড়ের মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

মো. নিজাম উদ্দিন, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২৩
মেঘনা পাড়ের মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মেঘনা নদীর তীরবর্তী ফসলি জমির মাটি কেটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ইটভাটায়।  

গত কয়েকদিন থেকে উপজেলার চর লরেন্স ইউনিয়নের মেসার্স এমএনএস ব্রিকস ম্যানুফেচারার নামে একটি ইটভাটার জন্য পার্শ্ববর্তী নবীগঞ্জ বাজারের দক্ষিণ পাশে নদীর তীরের কয়েকটি ক্ষেত থেকে মাটি কেটে ট্রাক্টরে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

মাটি কাটায় নিয়োজিত শ্রমিকরা জানায়, ৪ থেকে ৫ দিন ধরে তারা মাটি কাটছেন। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত তারা প্রায় অর্ধশতাধিক ট্রাক্টরে মাটি ভরাটের কাজ করেন। তারা জানান, পার্শ্ববর্তী ইটভাটার মালিক আনোয়ার হোসেন নিশাদ জমির মালিকদের কাছ থেকে মাটি কিনে নিয়েছেন। জমিগুলো নদীতে ভেঙে যাচ্ছে, তাই তারা মাটি বিক্রি করে দিয়েছেন।  

স্থানীয় সচেতন লোকজন জানায়, একদিকে নদী ভাঙছে, অন্যদিকে ভাঙনকবলিত এলাকার মাটি চলে যাচ্ছে ইটভাটাতে। নদী ভাঙন রোধে তীররক্ষা বাঁধের প্রকল্প একনেকে পাশ হয়েছে। নদীর তীরবর্তী কোনো কোনো এলাকায় বাঁধের কাজ শুরু হয়েছে। কিন্তু নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই এখন নদীর পাড় থেকে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে অবৈধ ইটভাটার মালিক। মাটি কেটে নেওয়ায় সেখানে একটি পুকুর সৃষ্টি হয়েছে। এতে নদীর বাঁধ নির্মাণ কাজ ব্যাহত হতে পারে। এছাড়া আসছে বর্ষা মৌসুমে নদী ভাঙন আরও ভয়াবহ হতে পারে।

এ বিষয়ে জানার জন্য ভাটার মালিক আনোয়ার হোসেন নিশাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে কল দিলে তিনি সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। পরে তাকে কয়েকবার কল দিয়েও পাওয়া যায়নি।  

কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুচিত্র রঞ্জন দাস বলেন, নদীর তীরের মাটি কাটার বিষয়ে অভিযান চালানো হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২৩
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।