ঢাকা, বুধবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৯ মে ২০২৪, ২০ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

এ বছর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাবেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
এ বছর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাবেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা: আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে এ বছর শহীদের শ্রদ্ধা নিবেদনে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেজন্য থাকছে বাড়তি নিরাপাত্তার ব্যবস্থা।

সোমবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ‘শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৩’ উদযাপন উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি ঘিরে আইন শৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  

সভা শেষে জানানো হয়, শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৩ উদযাপন উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী এ বছর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন। তাদের আগমন, অবস্থানের সময় যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একই সঙ্গে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা বলয়ে নিয়ে আসা হবে। সংশ্লিষ্ট এলাকায় ভিডিও সার্ভিলেন্সের আওতায় নিয়ে আসা হবে। প্রবেশ পয়েন্টসহ প্রয়োজনীয় এলাকায় সিসিটিভি, নাইট ভিশন ক্যামেরা ও আর্চওয়ে থাকবে।  

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বর এবং আজিমপুর কবরস্থান এলাকায় অতিরিক্ত ভিড় নিয়ন্ত্রণ করে অপ্রীতিকর অবস্থা রোধ করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সংশ্লিষ্ট এলাকায় ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণে ডিএমপি কর্তৃক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আগেই ট্রাফিক রোড ম্যাপ মিডিয়ার মাধ্যমে জানানো হবে। ঢাকা মহানগরের বাইরের অন্যান্য মেট্রোপলিটন এলাকায়, বিভাগীয় এলাকা, জেলা-উপজেলা পর্যায়ের কর্মসূচিতেও সার্বিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে৷ 

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ঢাকাস্থ বিদেশি দূতাবাসের প্রতিনিধিরা যাতে শহীদ মিনারে উপস্থিত হয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারেন তার জন্য নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।  

এছাড়া যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধারা যেন নির্বিঘ্নে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করতে পারেন সেজন্য রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী প্রস্থানের পর ৩০ মিনিট বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা রাখা হবে।

অগ্নিকাণ্ড প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় সুবিধাজনক স্থানে ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স কর্তৃক প্রয়োজনীয় সংখ্যক জনবল অগ্নিনির্বাপনের গাড়ি,যন্ত্রপাতি লাইটিং ইউনিট মোতায়েন থাকবে। বিভিন্ন জেলা উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস সমন্বয় করে কাজ করবে। প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক চিকিৎসক, নার্স, অ্যাম্বুলেন্স ও ওষুধসহ দুটি চিকিৎসা ক্যাম্প থাকবে বলেও সভায় জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
জিসিজি/এসআইএস 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।