ঢাকা, বুধবার, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যুক্তরাজ্যের সংসদীয় প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৫৯ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২৩
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যুক্তরাজ্যের সংসদীয় প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন যুক্তরাজ্যের ক্রস-পার্টি সংসদীয় প্রতিনিধি দল। শনিবার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যায় গণভবনে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

যুক্তরাজ্যের সংসদীয় প্রতিনিধি দলে ছিলেন- পল ব্রিসটো, জেইন হান্ট, পাউলেট হ্যামিলটন, অ্যান্তোনি হিগিনবোথাম, টম হান্ট।

সাক্ষাৎকালে রোহিঙ্গা সংকট, বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি ও নারীর ক্ষমতায়নসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।

সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব কে এম শাখাওয়াত মুন সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাজ্যের ক্রস পার্টি সংসদীয় প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশ সফরে আসায় আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।

রোহিঙ্গা ইস্যুটি আলোচনায় এলে শেখ হাসিনা যেকোনো সমস্যা আলোচনার মাধ্যমেই সমাধানের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

প্রধানমন্ত্রী ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব কারো সঙ্গে বৈরিতা নয়’ বাংলাদেশের এই পররাষ্ট্রনীতির কথা উল্লেখ করেন। এক্ষেত্রে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমার পরিস্থিতি বিষয়ে রেজোলিউশন অনুমোদনে যুক্তরাজ্যের নেতৃস্থানীয় ভূমিকার জন্য ধন্যবাদ জানান শেখ হাসিনা।

নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৯৬ তে প্রথম ক্ষমতায় এসে তার সরকার নারীর ক্ষমতায়নে ব্যাপক পদক্ষেণ গ্রহণ করে। এই ধারাবাহিকতায় বর্তমানে সংসদ নেতা, স্পিকার, সংসদের উপনেতা, সরকারের সচিব, বিচারক এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে নারীরা দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি বলেন, ফুটবল, ক্রিকেটসহ খেলাধুলায়ও বাংলাদেশের নারীরা জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সাফল্য অর্জন করছেন।  

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার এসডিজি বাস্তবায়নে "হোল অফ সোসাইটি" নীতিমালা গ্রহণ করেছে যাতে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি লিঙ্গ সমতা, মানসম্মত শিক্ষা, বিশুদ্ধ পানি ও স্যানিটেশন এবং সবার জন্য সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা হবে।

আলোচনাকালে কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও নারীর ক্ষমতায়নসহ বিভিন্ন খাতে বাংলাদেশের সাফল্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধি দলটি তাকে এ ক্ষেত্রে "অপ্রতিদ্বন্দ্বী নেতৃত্ব" হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

প্রতিনিধি দলটি বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস পরিদর্শন করেছেন উল্লেখ করে তারা বাংলাদেশের ফার্মাসিউটিক্যালস এর প্রশংসা করেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফার্মাসিটিক্যালস পণ্য রপ্তানি করে থাকে এবং এসব পণ্যের মানও খুব ভালো।

এছাড়া মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের ভূমিকার বিষয়টি উল্লেখ করে প্রতিনিধি দল তার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন।

জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে জনগণ মোটেও জানতো না, তার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের কারণে দেশের মানুষ এ বিষয়ে সচেতন হয়েছেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, অ্যাম্বাসেডর অ্যাটলার্জ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২৩
এমইউএম/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।