ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় শিক্ষার্থীসহ দুজনের আত্মহত্যা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০১৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় শিক্ষার্থীসহ দুজনের আত্মহত্যা

ঢাকা: রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে নিজ বাসায় রুবিনা আক্তার (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রী ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এছাড়া মুগদায় মঞ্জুর হাসান সোহেল (৪৮) নামে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন।

বুধবার (২২ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে কামরাঙ্গীরচর নয়াগাঁও বর্ণমালা স্কুলের পেছনে একটি তিন তলা বাড়ির নিচ তলার বাসায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে ওই স্কুলছাত্রী।  

অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্কুলছাত্রী রুবিনা আক্তার জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা শাহজাহান সিরাজের মেয়ে। এক ভাই ও ৫ বোনের মধ্যে সে ৪র্থ ছিল।

হাসপাতালে তার বড় বোন মেহেরুন্নেসা জানান, স্থানীয় একটি স্কুলের নবম শ্রেণিতে পড়তো রুবিনা। একই স্কুলে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে চাকুরি করেন মেহেরুন্নেসা। বুধবার (২২ মার্চ) স্কুলে প্রথম সেমিস্টারের ইংরেজি পরীক্ষা ছিল রুবিনার। দুপুরে স্কুলের শিক্ষকরা মেহেরুন্নেসাকে জানান, তার ছোট বোন রুবিনা পরীক্ষার হলে নকল করেছে। পরবর্তীতে তিনি বাসায় গিয়ে রুবিনার কাছে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে রুবিনা তা স্বীকার করে। এরপর সন্ধ্যার দিকে বাসায় সবার অগোচরে রুমের দরজা বন্ধ করে ফাঁস দেয় সে। অনেকক্ষণ ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে রুমের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া রুবিনার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে মুগদা এলাকায় মঞ্জুর হাসান সোহেল (৪৮) নামে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন।

এ বিষয়ে মৃতে ছোট ভাই ইকবাল হোসেন রানা জানান, উত্তর মুগদার মদিনাবাগে তাদের নিজেদের বাড়ি। তার বড় ভাই মঞ্জুর হাসান সোহেল তেমন কিছুই করতেন না। কিছুটা মানসিক সমস্যা ছিল তার। এজন্য চিকিৎসাও চলছিল। বুধবার (২২ মার্চ) সকাল ১০টার দিকে তাকে বাসায় রেখে তার স্ত্রী নাজমা বেগম বাইরে যান নাস্তা আনতে। কিছুক্ষণ পর বাসায় ফিরে দেখেন রুমের ভেতর ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে ঝুলছেন তিনি। খবর পেয়ে পুলিশ বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সন্ধ্যায় (২২ মার্চ) ঢামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

মুগদা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রব বাহাদুর জানান, মানসিক সমস্যা ছিল ওই ব্যক্তির। এর জেরেই তিনি ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
এজেডএস/এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।