ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

ঈশ্বরদীতে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনে আগুন

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০০৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২৩
ঈশ্বরদীতে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনে আগুন

পাবনা (ঈশ্বরদী): পাবনার ঈশ্বরদীতে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রেনের বগিতে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে পুড়ে গেছে ট্রেনের বগির ১২টি সিট।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) শাহ সুফী নুর মোহাম্মদসহ বিভাগীয় যান্ত্রিক প্রকৌশলী (ক্যারেজ) মমতাজুল ইসলাম, (লোকো) আশীষ কুমার মণ্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।  

ঈশ্বরদী জংসন স্টেশনের স্টেশন সুপারিন্টেনডেন্ট (এসএস) মহিউল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, ঢাকা থেকে দুপুরে ঈশ্বরদীতে আসে ৯৯ ঢাকা মেইল ট্রেনটি। স্টেশনের অদূরে ওয়াশফিটে রেখে ট্রেনটি পরিষ্কারের জন্য রাখা হয়। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) সকালে ঈশ্বরদী থেকে ঢাকা যাওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিল। সেখানে ফাঁকা দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় রাতে দুর্বৃত্তরা ওই ট্রেনের ৫৫৫৬ নম্বর বগির মধ্যে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে কয়েকটি সিট পুড়ে যায়। রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা দ্রুতই ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন না নেভালে বড় ধরনের ক্ষতি হত।

ঈশ্বরদী রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী চিফ ইন্সপেক্টর ফিরোজ হোসেন বাংলানিউজকে জানান, রাত সাড়ে আটটার দিকে কয়েকজন দুর্বৃত্ত ওই ট্রেনের ৫৫৫৬ নম্বর বগিতে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি এত দ্রুত ঘটেছে যে রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর টহলরত সদস্যরা বুঝে ওঠার আগেই বগির সিটে দাউ দাউ করে আগুন ধরে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশনে থাকা নিরাপত্তা বাহিনী ও রেলওয়ে পুলিশ ধাওয়া করেও তাদের ধরা সম্ভব হয়নি। খবর পেয়ে ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভায়।

ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার অপু কুমার মণ্ডল বাংলানিউজকে জানান, রাত সাড়ে আটটায় খবর পেয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। আগুনে ট্রেনের একটি বগির ১২টি আসন (সিট) কমবেশি পুড়ে গেছে।

পাকশী রেলওয়ে বিভাগীয় ম্যানেজার (ডিআরএম) শাহ সূফী নূর মোহাম্মদ বলেন, নাশকতার ঘটনায় পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের পক্ষ থেকে একটি কমিটি গঠন করে দ্রুত তদন্ত করা হবে।

ঈশ্বরদী রেলওয়ে জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুজ্জামান রোমেল এ তথ্য নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, ঈশ্বরদী রেলওয়ে জিআরপি থানায় রেলওয়ের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য, এর আগে ১ নভেম্বর দুুপুরে ঈশ্বরদী জংশন স্টেশনে কলকাতা-ঢাকা রুটে চলাচলকারী মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনে পেট্রল বোমা ছুঁড়ে দুর্বৃত্তরা। এতে ট্রেনের একটি জানালার গ্লাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরপর ৩ নভেম্বর সকালে স্টেশনের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রেনের নিচ থেকে একটি তাজা বোমা উদ্ধার করে নিষ্ক্রিয় করে র‌্যাব

বাংলাদেশ সময়: ০০০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২৩
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।