ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

শ্বশুরবাড়ির পাশে সয়াবিন ক্ষেতে পড়েছিল যুবকের মরদেহ 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪
শ্বশুরবাড়ির পাশে সয়াবিন ক্ষেতে পড়েছিল যুবকের মরদেহ 

লক্ষ্মীপুর: জেলার কমলনগরে একটি সয়াবিন ক্ষেত থেকে মো. কাশেম (৩০) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের চর জাঙ্গালিয়া গ্রাম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

ঘটনাস্থলটি ওই যুবকের শ্বশুরবাড়ির পাশে। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

কাশেম কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মোল্লা বাড়ির আবু সায়েদের ছেলে। তিনি পেশায় কৃষি শ্রমিক ছিলেন।

জানা গেছে, প্রায় তিন মাস আগে কাশেম হাজিরহাট ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের চর জাঙ্গালিয়া গ্রামের আলি আক্কাসের মেয়ে তাসলিমাকে বিয়ে করেন। তাসলিমা তার দ্বিতীয় স্ত্রী। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

কামেশের বাবা আবু সায়েদ জানান, মঙ্গলবার তার ছেলে শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হয়। সকালে ছেলের মৃত্যুর খবর পান তিনি। ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি তার।

হাজিরহাট ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য ইয়াছিন আরাফাত বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে কাশেম তার শ্বশুর বাড়ি থেকে বিদায় নিয়ে চলে যান। সকালে শ্বশুর বাড়ির পাশের একটি ফসলি ক্ষেতে তার মরদেহ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন ছিল। এটি হত্যাকাণ্ড হতে পারে।

কমলনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল জলিল বাংলানিউজকে বলেন, কাশেমের মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। তার নাক-মুখে রক্ত দিয়ে রক্ত বের হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।