ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

মাগুরার মহম্মদপুরে দুপক্ষের সংঘর্ষ, আহত ২০

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
মাগুরার মহম্মদপুরে দুপক্ষের সংঘর্ষ, আহত ২০

মাগুরা: মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বালিদিয়া বাজারে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষ, দোকানঘর লুটপাট ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন।

 

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।  

সংঘর্ষে জড়িত দুপক্ষই স্থানীয় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত বলে জানা গেছে।  

পুলিশ ওই স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বালিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন উপলক্ষে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান মিনার সমর্থক ফজর মৃধা ও আলমগীর মিনা কাঞ্চন মোল্যার কাছে ভোট চাইতে যান। এ সময় ইউনুচ শিকদার সমর্থক হেমায়েত শিকদার ও জাহিদুল শিকদার তাদের ওপর আক্রমণ চালান। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়।

রোববার দুপুরে উভয়পক্ষ বালিদিয়া বাজারে আধিপত্য বিস্তার করার চেষ্টা করে ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় বর্তমান চেয়ারম্যান মফিজ মিনার সমর্থকরা বালিদিয়া বাজারে ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটায়। এবং হাফেজ মফিদুলের হার্ডওয়ারের দোকান, তরিকুলের ওষুধের ফার্মেসি, শরিফুলের নূরানি মাদরাসা, রিপন মেম্বারের পাট ও ধানের গুদাম, বিল্লাল মোল্যার মোটরসাইকেল গ্যারেজ, আহমদ মোল্লার পোল্ট্রি ব্যবসা, নাজমুল মোল্লার সিজনাল ব্যবসা, সাবেক চেয়ারম্যান পান্নু মোল্যার অফিস ঘর, নাঈম মৃধার সিজনাল ব্যবসা, অহিদ মৃধার সিজনাল ব্যবসা, আলীমৃধার সারের ব্যবসা, মিলন শেখের সেলুন, আবুল হাসান মোল্লার মুদি ব্যবসা, আতিয়ার মোল্লার চায়ের দোকান ও রইচ মৃধার হার্ডওয়্যার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মো. মিলন মিয়া, গোলাম মোস্তফা, মফিজ মৃধা, লাভলু বিশ্বাস, আব্দুল হালিম মিনা, মিজান মোল্লা, মামুন মোল্লা, আব্দুল্লাহ আহত হয়ে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ২৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের অন্তত চারজনকে আটক করা হয়েছে। বালিদিয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান মিনা ও একই ইউনিয়নের সাবেক পান্নু মোল্যাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নিলেও আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেনি পুলিশ।

এদিকে মাগুরা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেবাশিষ কর্মকার, মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বোরহান উল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad