ঢাকা, সোমবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

অস্ত্র ও গুলিসহ আন্তঃজেলা ডাকাত সর্দার গ্রেফতার

অতিথি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
অস্ত্র ও গুলিসহ আন্তঃজেলা ডাকাত সর্দার গ্রেফতার

আশুলিয়া সংলগ্ন গাজীপুর মহানগরীর পানিশাইল এলাকা থেকে মো. জুয়েল নামের আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দারকে বিদেশি পিস্তল ও গুলিসহ গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৪। গ্রেফতার জুয়েল ও তার দল গত বছরে মানিকগঞ্জের দৌলতপুর বাজারের ‘মা জননী জুয়েলার্স’এর ২০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ লাখ টাকা লুট করে।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুর দেড়টার দিকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিপিসি ২, র‍্যাব ৪ সাভারের নবীনগর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাকিব মাহমুদ খান। এর আগে মঙ্গলবার দিন গত রাতে আশুলিয়া জিরানি বাজার সংলগ্ন গাজীপুর মহানগরীর কাশিমপুরের পানিশাইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  

জুয়েল মিয়া শেরপুর জেলার বাসিন্দা, তার বিরুদ্ধে মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর থানায় ১ টি ডাকাতি মামলা, শেরপুর জেলার সদর থানায় ১ টি ডাকাতি ও ২ টি অস্ত্র মামলা রয়েছে।  

র‍্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে  র‍্যাব-৪। এসময় আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার মো. জুয়েলকে ১ টি বিদেশি পিস্তল, ১ টি ম্যাগাজিন ও ১ রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করা হয়।

সিপিসি ২, র‍্যাব ৪ সাভারের নবীনগর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রাকিব মাহমুদ খান জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার জুয়েল মিয় স্বীকার করেছেন তিনি আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার। তার ৮/১০ জনের একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল রয়েছে। যারা প্রথমে ঢাকা ও আশপাশের জেলার বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের টার্গেট করে। পরবর্তীতে টার্গেট অনুযায়ী ব্যক্তি/ব্যক্তিদের অস্ত্র ও অন্যান্য আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে তাদের সর্বস্ব লুট করে।

তিনি আরও জানান, গত বছরের ১৩ অক্টোবর রাতে মানিকগঞ্জের দৌলতপুর বাজারের ‘মা জননী জুয়েলার্স’এর স্বত্বাধিকারী দিলীপ রাজবংশী প্রতিদিনের মতো দোকান বন্ধ করে নিকটাত্মীয়ের মোটর সাইকেল যোগে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন। এসময় তার কাছে ২০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ এক লাখ টাকা ছিল। দৌলতপুরের চুনাবাড়ী মোড়ে পৌঁছালে রাত সোয়া ১২টার দিকে দুটি মোটর সাইকেলে কয়েকজন এসে তাদের গতিরোধ করে। পরে মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে তার সঙ্গে থাকা স্বর্ণ ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে আত্মগোপন করে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জুয়েল স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। এঘটায় দৌলতপুর থানায় ভুক্তভোগী রাজবংশী তাদের বিরুদ্ধে একটি ডাকাতি মামলা করেন।

রাকিব মাহমুদ খান জানান, গ্রেফতারকৃত আসামিকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এরূপ ডাকাতি, ছিনতাই ও চাঁদাবাজ এবং অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে র‌্যাব-৪ এর সাড়াঁশি অভিযান অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
এমএম 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।