ঢাকা, সোমবার, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৮ মহররম ১৪৪৬

জাতীয়

ফেনীর খামার থেকে ১৩ গরু লুটে জড়িত দুজন গ্রেপ্তার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৩ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
ফেনীর খামার থেকে ১৩ গরু লুটে জড়িত দুজন গ্রেপ্তার

ফেনী: ফেনীর দাগনভূঞায় ১৩টি গরু লুটের ঘটনার মূল হোতা সোলেমান ও তার সহযোগী কামালকে র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের চাঁদগাঁও থেকে বুধবার (১২ জুন) রাতে গ্রেপ্তার করেছে। দুজনকে আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুরে দাগনভূঞা থানায় হস্তান্তর করেছে র‌্যাব।

র‌্যাব জানায়, দাগনভূঞার রাজাপুর ইউনিয়নের জয়নারায়নপুর গ্রামে কোরাইশমুন্সি-ফেনী সড়কের পাশে গড়ে ওঠা খাঁন অ্যাগ্রো খামারে কোরবানির ঈদে বিক্রির জন্য ২১টি গরু রাখা ছিল। সংঘবদ্ধ ২০-২৫ জন দুর্বৃত্ত গভীর রাতে মুখোশ পরে নৈশপ্রহরী আহমেদ ও আবদুর রহমানকে মারধর করে বেঁধে রেখে ১৩টি গরু লুট করে নিয়ে যায়। এই গরুর দাম প্রায় ২৫ লক্ষাধিক টাকা। গরু লুটের বিষয়ে খাঁন অ্যাগ্রো ফার্মের মালিক মো. দাউদ খাঁন বাদী হয়ে দাগনভূঞা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।  

ঘটনার রহস্য উদঘাটনে র‌্যাব দায়িত্ব নিয়ে গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে, খামারে গরু লুটের হোতা ফেনীর সোনাগাজীর চর চান্দিয়া গ্রামের সেকান্দরের ছেলে আসামি সোলাইমান ও তার সহযোগী কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গাংরা গ্রামের আবদুল হালিমের ছেলে জামাল হোসেন মানিক চট্টগ্রাম মহানগরীর চাঁন্দগাও থানা এলাকায় অবস্থান করছেন। র‌্যাব সেখানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে।  

তারা জিজ্ঞাসাবাদে ওই লুটে জড়িত বলে স্বীকারোক্তি দেন। সোলাইমানের বিরুদ্ধে ফেনী ও চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন থানায় ১১টি মামলা, জামাল হোসেন মানিকের বিরুদ্ধে কুমিল্লা জেলার বিভিন্ন থানায় ৪টি মামলা রয়েছে।

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল হাসিম আসামিদের র‌্যাব হস্তান্তর করেছে বলে নিশ্চিত করেন। তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৯ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
এসএইচডি/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।