ঢাকা, সোমবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

সংসদ সদস্য ও জনগণের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরি হয়েছে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০
সংসদ সদস্য ও জনগণের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরি হয়েছে

ঢাকা: স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, এসপিসিপিডি প্রকল্প ও বিএপিপিডি’র মাধ্যমে জনগণের কাছে যাবার একটি ক্ষেত্র রচিত হয়েছে। পাশাপাশি সংসদ সদস্য ও জনগণের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরি হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) স্পিকার পূর্বাচল ক্লাবে অনুষ্ঠিত স্ট্রেন্থেনিং পার্লামেন্টস ক্যাপাসিটি ইন পপুলেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইস্যুজ (এসপিসিপিডি) প্রকল্পের আওতায় গঠিত বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব পার্লামেন্টারিয়ান্স অন পপুলেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বিএপিপিডি)-এর তিনটি সাব-কমিটির প্রথম যৌথসভায় বিএপিপিডি-র সভাপতি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন।

এ সময় সাব-কমিটিগুলোর সভাপতি, অন্যান্য সংসদ সদস্য ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে সফলভাবে তাদের কার্যসম্পাদনের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান স্পিকার।

তিনি বলেন, সচেতনতামূলক কর্মসূচি থেকে শুরু করে কার্যকর আইন প্রণয়ন, বিদ্যমান আইনগুলোর সংশোধনে কাজ করছে বিএপিপিডি। তৃণমূল পর্যায়ে যোগাযোগের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট স্থায়ী কমিটি ও মন্ত্রণালয়ের সাথে বৈঠক, স্মারক ও পত্র আদান-প্রদানসহ বহুমুখী কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে তিনটি সাব-কমিটি।

২০২১ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধিতে আনন্দ প্রকাশ করে স্পিকার বলেন, আগামী এক বছর জনকল্যাণমুখী কী ধরনের কার্যক্রম নেওয়া যেতে পারে সে বিষয়ে আজকের আলোচনা সভা থেকে অ্যাকশন প্ল্যান নেওয়া সম্ভব হবে।

সংসদ সদস্য আ স ম ফিরোজের সভাপতিত্বে সভায় মেহের আফরোজ এমপি, শামসুল হক টুকু এমপি, উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ এমপি, হাবিবে মিল্লাত এমপি, শহীদুজ্জামান সরকার এমপি, অ্যারমা দত্ত এমপি, আদিবা আঞ্জুম মিতা বক্তব্য রাখেন। সভায় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান, প্রকল্প পরিচালক যুগ্মসচিব এম এ কামাল বিল্লাহ, জাকিউর রহমান ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশ নেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০
এসকে/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।