ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

গ্রিল ভেঙে ঘরে ঢুকে দম্পতিকে মারধর, টাকা-স্বর্ণালংকার লুট

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২২
গ্রিল ভেঙে ঘরে ঢুকে দম্পতিকে মারধর, টাকা-স্বর্ণালংকার লুট হাসপাতালে আহত বৃদ্ধ দম্পতি

বাগেরহাট: বাগেরহাটের কচুয়ায় জানালার ‍গ্রিল ভেঙে ঘরে ঢুকে বৃদ্ধ এক দম্পতিকে মারধর করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার (০১ জানুয়ারি) গভীর রাতে কচুয়া উপজেলার খলিশাখালী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত আনসার সদস্য সৈয়দ আলী শেখের বাড়িতে ৫-৬ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল এ লুটের ঘটনা ঘটায়।

এসময় সংঘবদ্ধ দলটি সৈয়দ আলী ও তার স্ত্রী মর্জিনা বেগমকে মারধর করে। একপর্যায়ে তাদের চেতনানাশক স্প্রেতে অচেতন হয়ে যায় বৃদ্ধ দম্পতি। পরে সৈয়দ আলীর আলমিরাতে রাখা মেয়ে ও নাতনির ৯ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ দেড় লাখ টাকা লুটে নেয় তারা।

রোববার (২ জানুয়ারি) সকালে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ওই বৃদ্ধ দম্পতিকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃদ্ধ সৈয়দ আলী শেখের জ্ঞান ফিরলেও, অচেতন অবস্থায় রয়েছেন তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম।

বৃদ্ধ সৈয়দ আলী শেখের একমাত্র মেয়ে হিরাজী বেগম বলেন, সকালে আমার ছোট মেয়ে নানাবাড়িতে (সৈয়দ আলীর বাড়ি) গিয়ে দেখে সামনের জানালার রড খোলা। ভেতরে প্রবেশ করে দেখে বাবা-মা অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন। বিষয়টি আমাদের জানালে তাৎক্ষণিকভাবে বাবা-মাকে উদ্ধার করে স্থানীয় সাইনবোর্ড ক্লিনিকে ভর্তি করি। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছি। বাবার জ্ঞান ফিরলেও মা এখনও অচেতন অবস্থায় রয়েছেন।

হিরাজী বেগম আরও বলেন, বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান আমি। পাশের গ্রামে স্বামীর বাড়িতে থাকি আমি। যার ফলে আমাদের বাড়িতে শুধু বৃদ্ধ বাবা-মা-ই থাকেন। একটু নিরাপদ মনে হওয়ায় আমার মেয়েদের স্বর্ণালংকার বাবার বাড়িতেই থাকত। হজের জন্য জমানো বাবার দেড় লাখ টাকাও নিয়ে গেল ডাকাতরা। আমাদের বড় সর্বনাশ হয়ে গেল। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

বৃদ্ধ সৈয়দ আলী শেখের বরাত দিয়ে হিরাজী বেগম আরও বলেন, প্রতিদিনের মত রাতে খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন বাবা-মা। গভীর রাতে জানালার রড ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে ৫-৬ জনের একটি দল। প্রথমে তারা বাবা-মাকে মারধর করে। তারা আমার বাবার ঘাড়েও কোপ দেয়। পরবর্তীতে চেতনানাশক স্প্রে করে অচেতন করে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

কচুয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শহর আলী বলেন, খবর পেয়ে ওই দম্পতির বাড়ি পরিদর্শন করা হয়েছে। বৃদ্ধের বাড়ির জানালার কাঠ ও রড বেশ পুরাতন। জানালার রড খুলে তারা ভেতরে প্রবেশ করেছে। বৃদ্ধ দম্পতি অচেতন অবস্থায় বাগেরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তাদের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে এই ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৮ ঘণ্টা, ০২ জানুয়ারি ২০২২

আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa