ঢাকা, বুধবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

কাঁচামালবাহী ট্রাক নিয়ে মেঘনার চরে আটকা ফেরি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২২
কাঁচামালবাহী ট্রাক নিয়ে মেঘনার চরে আটকা ফেরি কাচামালবাহী ট্রাক নিয়ে মেঘনার চরে আটকা ফেরি

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুর-ভোলা নৌরুটে চলাচলকারী ফেরি কৃষাণী ছোট বড় প্রায় ১৯টি যানবাহন নিয়ে মেঘনা নদীর চরে আটকা পড়েছে।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) ভোর ৪টার দিকে ফেরিটি চরে উঠে আটকে যায়।

সারাদিন বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও সেখান থেকে নামানো সম্ভব হয়নি ফেরিটি। সন্ধ্যা ৬ টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ফেরিটি সেখানে আটকে আছে।

জানা গেছে, রাত ১ টার দিকে ফেরি কৃষাণী পণ্যবাহী কাভার্ডভ্যান, ট্রাক, পিকআপ নিয়ে ভোলার ইলিশাঘাট থেকে লক্ষ্মীপুরের মজুচৌধুরীর হাটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। ভোর ৪ টার দিকে ঘন কুয়াশার কারণে ফেরিটি মজুচৌধুরীর হাটের প্রায় আধা কিলোমিটার পশ্চিমে মেঘনা নদীর রহমতখালী চ্যানেলের মুখের একটি ডুবোচরে উঠে পড়ে। ফেরিতে দুটি কাঁচামালবাহী (সবজি) ট্রাক রয়েছে।

আটকা পড়া ফেরির মাষ্টার কার্তিক চন্দ্র দাস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভোর চার টার দিকে ফেরিটি আটকা পড়ে। আমরা জোয়ারের অপেক্ষায় আছি। জোয়ার আসলে ফেরিটি নামানো সম্ভব হতে পারে।  

তিনি বলেন, সেটিকে উদ্ধারের জন্য ফেরি কুসুমকলি গিয়ে চেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয়।

মজুচৌধুরীর হাট ফেরিঘাটের প্রান্তিক সহকারী রেজাউল করিম রাজু বাংলানিউজকে বলেন, ফেরিটি বিকেল ৪ টার দিকে জোয়ারের সময় নামানোর চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু সম্ভব হয়নি। আবার মঙ্গলবার ভোর ৪ টার দিকে জোয়ার আসলে নামানোর চেষ্টা করা হবে।

এদিকে, লক্ষ্মীপুর-ভোলা নৌরুটের রহমতখালী চ্যানেলে নাব্যতা বাড়ানোর জন্য ড্রেজিং প্রকল্প চালু থাকলেও তা কোনো কাজে আসছে না। এ রুটে নাব্যতা সংকট থাকায় ফেরি, লঞ্চ এবং নৌযান চলাচল ব্যহত হচ্ছে বলে জানান স্থানীয়রা।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৬ ঘণ্টা, ৩ জানুয়ারি, ২০২২
জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa