ঢাকা, রবিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

আসামি ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ৭

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২২
আসামি ছিনতাইয়ের ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ৭

বরিশাল: বরিশাল নগরে পুলিশের কাছ থেকে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ছিনতাইয়ের ঘটনায় এখন পর্যন্ত মোট সাতজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
 
এ ঘটনায় এসআই জয়ন্ত দাস বাদী হয়ে ৫৫ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় ২৫ জনকে নামধারী এবং বাকিদের অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।
 
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিমুল করিম।
 
তিনি জানান, গ্রেফতারদের মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারী) আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
 
ওসি আরও জানান, আসামি ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে আদালতে রিমান্ড আবেদন করা হবে।
 
গ্রেফতার আসামিরা হলেন- ছিনতাই হওয়া আসামি নগরীর ভাটারখাল এলাকার শহিদ কাজী এবং আসামি ছিনতাইকারী স্বপন বেপারী, পারভেজ বেপারী, পারুল বেগম, তারেক শাহ, অলি আহমেদ এবং রাজিব খান। এদের মধ্যে তারেক শাহ মহসিন মার্কেট সংলগ্ন নানী বুড়ি ফাঁড়ির ইনচার্জ এটিএসআই মজিবর রহমানের ঘনিষ্টজন বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।  

তারা জানান, ফাঁড়ি ইনচার্জ মজিবর রহমানকে প্রায়ই ডিসি ঘাটে তারেক শাহ’র সঙ্গে চা পান করতে দেখা যেত।
 
সোমবার (৩ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বরিশাল নগরীর ভাটারখাল এলাকায় ডিসিঘাট সংলগ্ন একটি রেস্টুরেন্টে পিকনিক করছিল স্পিডবোট মালিক সমিতি। সেখানে ছিলেন মাহেন্দ্রা চালক শহিদুল ইসলাম কাজী। যার বিরুদ্ধে লঞ্চঘাট এলাকায় একজনকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। খবর পেয়ে এসআই জয়ন্ত দাস অভিযান চালিয়ে শহিদুল ইসলাম কাজীকে গ্রেফতার করেন। এসময়ে স্বপন বেপারী, পারভেজ বেপারী, পারুল বেগম, তারেক শাহ, অলি আহমেদ এবং রাজিব খানসহ অর্ধশত ব্যক্তির নেতৃত্বে গ্রেফতার শহিদুল ইসলাম কাজীকে হ্যান্ডকাপসহ ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
 
এসময়ে এসআই জয়ন্ত দাসের ওয়্যারলেসও ছিনিয়ে নিয়ে যায় তারা। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুই ঘণ্টার ব্যবধানে শহিদুল ইসলাম কাজীকে হ্যান্ডকাপ ও পুলিশের ওয়্যারলেসসহ গ্রেফতার করে। এসময়ে আসামি ছিনতাইকারী আরও ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) লোকমান হোসেন।
 
বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার আলী আশরাফ ভূঁঞা বলেন, যে আসামিকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছিলো তাকে হাতকড়াসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে ওয়্যারলেস। যারা ছিনিয়ে নিয়েছে তাদের মধ্যে ছয়জন গ্রেফতার হয়েছে। তাছাড়া রাতেই পুলিশ বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলার বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৭৪৪ ঘণ্টা, জানুয়া‌রি ০৫, ২০২১
এমএস/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa