ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

ভোটের দিনেও ছুটি নেই চা শ্রমিকদের!

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২২
ভোটের দিনেও ছুটি নেই চা শ্রমিকদের! মৌলভীবাজারের চা বাগানে কর্মরত নারী চা শ্রমিক

মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় বুধবার (০৫ জানুযারি) পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও এবার নেই সাধারণ ছুটি। ফলে চা বাগানের চা শ্রমিক ভোটাররা পড়েছেন বিপাকে।

জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার ২২টি চা বাগানের প্রায় ৪০ হাজার ভোটার রয়েছেন। বুধবার চা-শ্রমিকরা নিজেদের নির্ধারিত ছুটি থেকে ভোটের দিন ছুটি নিতে পারবেন বলে চা বাগান ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানান। তবে এবারই প্রথম ভোটের দিন ছুটি নেই বলে জানান চা শ্রমিকরা। ফলে এদিন সব সরকারি-বেসরকারি অফিস ও ব্যাংকের মত চা বাগানগুলো খোলা রয়েছে। ফলে চা শ্রমিক ভোটারদের জন্য সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে বলে চা শ্রমিক নেতারা জানান।

আলীনগর চা বাগানের চা ছাত্র যুব পরিষদের নেতা সজল কৈরী বলেন, এতদিন যতগুলো নির্বাচন হয়েছে সবগুলো নির্বাচনে চা বাগানে ছিল সাধারণ ছুটি। ফলে ছুটির মধ্যে থেকে উৎসবমুখর পরিবেশে চা শ্রমিক ভোটাররা কেন্দ্রে গিয়ে নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন। আর এবার কাজের চাপ আর ভোটের চিন্তা দুটি মাথায় থাকলে সব চা শ্রমিক ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত নাও থাকতে পারেন। চা বাগান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন যেহেতু সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেনি তাই চা বাগান কর্তৃপক্ষও ছুটি দেয়নি।  

বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের মনু-ধলই ভ্যালির (আঞ্চলিক) কার্যকরী কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল দাশ পাইনকা বলেন, এ অবস্থায় চা শ্রমিক ভোটাররা চিন্তায় পড়ে গেছেন। তারা যদি আনলিভ নেন তা হলে পরের সাপ্তাহিক ছুটির দিন কাজ করতে হবে। এটি নির্বাচনে কিছুটা হলেও প্রভাব ফেলতে পারে।

বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেষ্টা ও কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রামভজন কৈরী বলেন, কমলগঞ্জে ২২টি চা বাগানে ৩৫ থেকে ৪০ হাজার ভোটার রয়েছে। সাধারণ ছুটি না হলে সব চা শ্রমিক নিজেদের নির্ধারিত ছুটি থেকে একদিনের ছুটি নিয়ে ভোট দেবেন কিনা তা নিয়ে তারা চিন্তিত। তারা আনলিভ নিলে আবার পরে কাজ করে তা পুষিয়ে দিতে হবে। এতে কিছুটা হলেও এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে।

আলীনগর চা বাগান ব্যবস্থাপক হাবিব আহমেদ চৌধুরী বলেন, সরকার যেহেতু সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেনি তাই ভোটের দিন চা শ্রমিকরা একদিনের আনলিভ নিয়ে ভোট দিতে পারবেন।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক (ইউএনও) বলেন, এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাধারণ ছুটি নেই। এদিন ব্যাংকসহ সব অফিস খোলা রয়েছে। যারা ভোট গ্রহনের দায়িত্ব পালন করবেন তারা ব্যতীত বাকি কর্মচারীরা অফিস করবেন। এ অবস্থায় চা বাগানেও সাধারণ ছুটি নেই। চা বাগানে তারা তাদের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ভোটের ছুটি নিতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০২২
বিবিবি/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa