ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ মাঘ ১৪২৯, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৭ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

পদ্মার চরের বিরোধ গড়ালো রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২২
পদ্মার চরের বিরোধ গড়ালো রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে

রাজশাহী: মাটি কাটার ছুতোয় দীর্ঘ দিনের বিরোধ রূপ নিলো রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে। রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পদ্মার চরে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে ৮ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার (৮ জানি্ুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পদ্মার মধ্য কড়ালি নওশারার হবিরচরে এই সংঘর্ষ হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাঘা সীমান্ত এলাকার পদ্মার মধ্য কড়ালি নওশারার হবির চরের শরিফুল ইসলাম নিজ জমিতে মাটি কাটছিলেন। এ সময় প্রতিপক্ষের আলমগীর হোসেন গিয়ে বাধা দেন। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ শুরু হয়।

সংঘর্ষে শরিফুল ইসলাম, তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম, বোন মাজেদা বেগম ও ভাই জিয়াউল হক আহত হন। এছাড়া সংঘর্ষের সময় আলমগীর হোসেনের পক্ষের রিপন হোসেনও আহত হন। পরে আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। সেখান থেকে দুপুরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে তারা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, শরিফুল ইসলাম ও আলমগীর হোসেনের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এর জেরে এর আগেও তাদের মধ্যে একাধিকবার সংঘর্ষ হয়েছে। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) আলমগীর ও তার মা আসুরা বেগমকে মারধর করা হয়। আহত অবস্থায় ওই দিনই তাদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

রাজশাহীর বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, সংঘর্ষের পর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তবে কাউকে সেখানে পাওয়া যায়নি। আহতরা রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রয়েছেন। এখনও কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০২২
এসএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa