ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

অফবিট

রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া লাখ টাকা প্রবাসীকে ফেরত দিল মাদরাসার ২ ছাত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৪, ২০২৩
রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া লাখ টাকা প্রবাসীকে ফেরত দিল মাদরাসার ২ ছাত্রী

টাঙ্গাইল: রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া লাখ টাকা মালিককে ফেরত দিয়েছে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার কালিয়া ইসলামিয়া সিনিয়র মাদরাসার পঞ্চম শ্রেণির দুই ছাত্রী।

বুধবার (০৪ জানুয়ারি) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

 

জানা যায়, পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী মারিয়া ও রাবিয়া সকালে  বাড়ি থেকে মাদরাসায় যাচ্ছিল। এসময় রাস্তায় টাকার একটি বান্ডেল পড়ে থাকতে দেখে কুড়িয়ে নেয় তারা। পরে টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য টাকার প্রকৃত মালিককে খুঁজতে থাকে তারা, সেই সঙ্গে তারা সবার কাছে টাকা পাওয়ার কথা বলতে থাকে। পরে দেখা যায়, ওই বান্ডেলে এক লাখ টাকা রয়েছে। এদিকে লোকমুখে টাকার মালিক প্রবাসী আশরাফ বিষয়টি জানতে পারে দুই ছাত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা তাকে টাকাগুলো দিয়ে দেয়।  
প্রবাসী আশরাফ জানান, তিনি সকালে ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বাড়ি ফেরার পথে রাস্তায় তার অজান্তে এক হাজার টাকার একটি বান্ডেল (এক লাখ টাকা) পড়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে টাকার আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ তিনি জানতে পারেন, টাকাটা দুই মাদরাসাছাত্রী পেয়েছে এবং সেই টাকাটা ফেরত দেওয়ার জন্য মালিককে খুঁজছে। পরে তাদের সঙ্গে দেখা করলে টাকাটা ফেরত দেয় তারা।  

তিনি বলেন, আমি ওদের সততা দেখে অবাক হয়েছি, তারা চাইলে কাউকে না বলে নিজেরাই টাকাটা রেখে দিতে পারত। কিন্তু তারা তা করেনি।

কালিয়া ইসলামিয়া সিনিয়র মাদরাসার শরীরচর্চা শিক্ষক জয়নাল আবেদীন আজমিশ বলেন, আমাদের মাদরাসার ছাত্রীদের এমন প্রশংসনীয় কাজে আমরা সবাই গর্বিত। আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়মিত অ্যাসেম্বেলিতে নৈতিকতা শিক্ষা দিতে চেষ্টা করি।

এ বিষয়ে কালিয়া ইসলামী সিনিয়র মাদরাসার অধ্যক্ষ আবুল খায়ের গুলজারী বলেন, দুই ছাত্রীর এমন কাজে অবশ্যই তাদের পরিবার ও মাদরাসার সবাই উচ্ছ্বসিত। আমরা তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৪, ২০২৩
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।