ঢাকা, রবিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪৩০, ০১ অক্টোবর ২০২৩, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

রাজনীতি

বিএনপি একা সরকারের পতন ঘটাতে পারবে না: ড. মোশাররফ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২৩
বিএনপি একা সরকারের পতন ঘটাতে পারবে না: ড. মোশাররফ

কুমিল্লা: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন কুমিল্লার নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, সরকারের পতন ঘটাতে জনগণকে বোঝাতে হবে। আগে বিএনপি নেতাকর্মীদের বুঝতে হবে ১০ দফা কি? এরপর জনগণকে বোঝাতে হবে।

বিএনপি একা সরকারের পতন ঘটাতে পারবে না। জনগণকে সঙ্গে রাখতে হবে।  

রোববার (৮ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন হোটেল নূর মহলে আয়োজিত বিএনপি ঘোষিত আন্দোলনের ১০ দফা এবং রাষ্ট্র কাঠামো মেরামতের রূপরেখার ২৭ দফার ব্যাখ্যা শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।  

এসময় তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিএনপির ঘোষিত ১০ দফার ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ করেন।  

খন্দকার মোশাররফ বিএনপি নেতাদের বলেন, আপনাদের যদি কেউ বলে এই ১০ দফা না মানলে কি করবেন? আপনারা বলবেন, আমরা সরকারের পতন ঘটাব। এই পতন শুধু বিএনপি নয় দেশের জনগণ ঘটাবে। জনগণের শক্তির ওপর কোনো শক্তি নেই। দেশের আরও ৩৩ দল আমাদের (বিএনপির) সঙ্গে যুগপৎ আন্দোলন করছে। তাদের সঙ্গে জনগণকে নিয়ে এই সরকারের পতন ঘটাব। সরকারের পতন ঘটিয়ে আমরা একা সরকার চালাব না। যারা এই সরকারের বিরুদ্ধে ও গণতন্ত্রের পক্ষে থাকবে আমরা তাদের নিয়ে সরকার গঠন করব।  

এসময় বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বলেন, শ্রীলঙ্কার দিকে তাকান। ১৮ বছর এক পরিবার পুরো দেশ চালিয়েছে। যখন জনগণ রাস্তায় নেমেছে, তখন কিন্তু কেউ টিকতে পারে নাই। একজনে জাহাজে করে পালাইছে। কয়েকজনকে উলঙ্গ করে পিটাইছে। পানির মধ্যে ফেলে চুবাইছে। তো ওই ক্ষমতা যদি যেতে পারে, আইয়ুব খানের মতো ক্ষমতাবান যদি যেতে পারে, এরশাদের মতো ক্ষমতাবানকে যদি জনগণ তাড়াতে পারে, তো আরেকজনকে তাড়াতে পারবে না কেন? এটা করতে হলে আমাদের সবাইকে বুঝতে হবে। আর তার জন্যই আমরা ১০ দফা দিয়েছি।  

তিনি বলেন, অনেকেরই ধারণা ছিল ১০ ডিসেম্বর ঢাকার সমাবেশ থেকে আমরা বড় ধরনের আন্দোলনের ঘোষণা করব। কিন্তু না, ঢাকার গণসমাবেশ ছিল বিভাগীয় গণসমাবেশ। অন্যান্য জেলায় যেরকম গণসমাবেশ হয়েছে ঢাকার গণসমাবেশও একই ধরনের। তবে আমরা আন্দোলনের ১০ দফা ঘোষণা করেছি। এর মধ্যে আমাদের গণমিছিল, গণঅবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। সারাদেশে মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে এসব কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছে। এরপর আমরা গণঅভ্যুত্থানের ডাক দেব। সবাই এ কর্মসূচি পালন করবেন।

কুমিল্লা উত্তর-দক্ষিণ জেলা বিএনপি ও মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা অংশ নেওয়া এই কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক হাজি আমিন-উর-রশিদ ইয়াছিন।  

বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সায়েদুল হক সাইদ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০২৩
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa