ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

রাজনীতি

শেখ হাসিনার নিজের দীপ্তি আছে: মতিয়া চৌধুরী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৫ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২৩
শেখ হাসিনার নিজের দীপ্তি আছে: মতিয়া চৌধুরী

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু পাবলিসিটির ঝলমলে আলোয় আলোকিত নয় মন্তব্য করে জাতীয় সংসদের সরকার দলীয় সংসদ উপনেতা বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছন, তার (প্রধানমন্ত্রী) নিজের দীপ্তি আছে।

শনিবার (১৮ মার্চ) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

 

রাজধানীর ভাষানটেক বাজার মোড়ে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, আজকে বাংলাদেশ সমুদ্র বিজয় করে। সমুদ্র তো আগেও ছিল, এখনও আছে। কিন্তু এই সমুদ্র বিজয় আগে কেউ ভাবতে পারেনি। অতীতে যখন চাপ এসেছে, সবাই আত্মসমর্পণ করেছে, মাথা নত করেছে। একমাত্র বঙ্গবন্ধুর পর তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সমুদ্র বিজয় করেছেন। সমুদ্র সীমা নিয়ে যেসব জটিলতা ও সমস্যার উদ্ভব হয়েছে, সেগুলো তিনি স্তব্ধ করেছেন, সমাধান করতে সক্ষম হয়েছেন।

তিনি বলেন, সংবিধানে অন্ন, বস্ত্র, শিক্ষা, চিকিৎসা ও বাসস্থানকে মৌলিক অধিকার হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। সেই বাসস্থানের স্বপ্ন দেশের অনেক মানুষ দেখতে পারতো না। গ্রামে এমনও পরিবার আছে যারা চিরদিন অন্যের বাড়িতে থেকেছে, সকালে উঠে কাজে গেছে। আজকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের লাল-সবুজ ঘরের ঠিকানা দিয়েছেন। একটি স্থায়ী আবাসস্থল দিয়েছেন।  

জাতীয় সংসদের ওই উপনেতা বলেন, আমাদের প্রত্যেকেরই নাড়ি পোঁতা আছে গ্রামে। সেখানে গিয়ে দেখেন, ২২ রকমের ওষুধ কমিউনিটি ক্লিনিকে পাওয়া যায়৷ এখন আর কোনো প্রসূতি হাসপাতালে আনার পথে মারা যায় না। এই হলো আজকে আমাদের চিকিৎসার অবস্থা। আজকে পুরোনো কাপড় কাউকে বিনা পয়সায় দিলেও রাখতে চায় না। এখন পুরোনো কাপড় লাগে গাড়ি মোছা, ধোয়ার কাজে। পুরোনো কাপড় এখন আর কেউ পরে না। আজকে ফকিরকে ডেকে আনেন বাসি ভাত নেওয়ার জন্য, ফকির আপনাকে ইংরেজি শোনাবে, বলবে, আমার তো গ্যাস্ট্রিক, বাসি ভাত খেতে পারি না, পানি ভাত খেতে পারি না। এই তো আমাদের অবস্থা।

তিনি বলেন, অন্ন, বস্ত্র, শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থান সবকিছুর ব্যবস্থা করেও আমাদের প্রধানমন্ত্রী ক্ষান্ত হননি। এই সেবা কীভাবে আরো দিন দিন উন্নত করা যায়, কীভাবে মানুষকে আরো স্বস্তি এবং শান্তি দেওয়া যায় সেই চিন্তা করছেন। পৃথিবীতে কয়টি দেশে বছরে স্কুল খোলার দিনে বিনা পয়সায় নতুন বই দেওয়া হয়। খোঁজ নিলে দেখা যাবে বাংলাদেশ ওপরের দিকের তালিকায় আছে। এইতো বাংলাদেশের চিত্র।

আওয়ামী লীগের ওই নেত্রী বলেন, মাঝে মাঝে দুর্বিপাক আসে, অসুবিধা আসে। কিন্তু আমাদের প্রধানমন্ত্রী ‘হাল ছেড়ো না বাংলাদেশ’ স্লোগানের প্রতিমূর্তি হয়ে হাল ছাড়েন না। ঝড়, বৃষ্টি আঁধার রাতে শেখ হাসিনার সঙ্গে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ, মহিলালীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সবাই আছে। নেতাদের মতিভ্রম হয়, কিন্তু কর্মীদের মতিভ্রম হয় না, এটা আওয়ামী লীগের কর্মীরা বার বার প্রমাণ করেছেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম।  

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি।  

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাদের খান, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শবনম জাহান শিলা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৩ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২৩
এসসি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।