ঢাকা, সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ জুন ২০২৪, ০৯ জিলহজ ১৪৪৫

রাজনীতি

সরকার ‘লুটপাটের স্বার্থে’ পুরো বাংলাদেশকে ‘তালুকদারিতে’ পরিণত করেছে: সালাম

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২৪
সরকার ‘লুটপাটের স্বার্থে’ পুরো বাংলাদেশকে ‘তালুকদারিতে’ পরিণত করেছে: সালাম

ঢাকা: সরকার ‘লুটপাটের স্বার্থে’ পুরো বাংলাদেশকে ‘তালুকদারিতে’ পরিণত করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বিকেলে জোন-৪ এর অন্তর্গত ধানমন্ডি-কলাবাগান ও নিউমার্কেট থানা ও ওয়ার্ড বিএনপির নেতৃবৃন্দের সঙ্গে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির মতবিনিময় সভায় সভাপতি হিসেবে বক্তব্য দেওয়ার সময় তিনি এ মন্তব্য করেন।

সালাম বলেন, সরকারের ছত্রছায়ায় থাকা লোকেরা একদিকে ব্যাংক লোপাট করছে, টাকা পাচার করছে। অন্যদিকে বিরোধীদের ব্যবসা দখল করে নিচ্ছে। সরকারি ছায়াতলের বাইরে থাকা সাধারণ মানুষের সম্পদের এখন আর কোনো নিরাপত্তা নেই। সরকার তাদের স্বার্থে রাষ্ট্রীয় সংস্থাগুলোকে যাচ্ছেতাই ব্যবহার করছে।

তিনি বলেন, সরকার লুটপাটের স্বার্থে পুরো বাংলাদেশকে তালুকদারিতে পরিণত করেছে। জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে পুরো রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে বিরোধীদের প্রতিনিয়ত দমন পীড়নে ব্যবহার করছে এবং লুটপাটের জন্য ব্যবসায়িক একটি গোষ্ঠীকে সরকার অধিকাংশ ব্যাংকগুলোকে ‘বরাদ্দ দিয়েছে’।

আব্দুস সালাম বলেন, বাজার নিয়ন্ত্রণের কথা সরকারের বিভিন্ন পর্যায় থেকে বলা হলেও নিত্যপণ্যের দাম কমাতে পারছে না। ঋণের নামে যারা ব্যাংক থেকে কোটি কোটি টাকা নিয়ে মেরে দিয়েছে, তারা সরকারের লো।

তিনি আরও বলেন, গ্রামীণ নামে ড. ইউনূসের যত প্রতিষ্ঠান আছে, সব দখল করে ফেলেছে। বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ীকে আজ মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কোর্টের বারান্দায় দিনের পর দিন দাঁড় করিয়ে রাখা হচ্ছে। এই হচ্ছে বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থা। সরকারের পক্ষে থাকলে সবকিছু জায়েজ হয়ে যায়; বিপক্ষে গেলে সবার ওপর নেমে আসে অবর্ণনীয় নির্যাতন। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য তিনি সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে রাজপথে চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু বলেন, ঋণ খেলাপিদের কাছ থেকে টাকা আদায় করতে না পারলেও সাধারণ কৃষককে দড়ি বেঁধে জেলে ঢোকানো হচ্ছে। তিনিও সরকারি ছায়াতলের বাইরে যারা আছেন, তাদের জীবন ও সম্পদের কোনো নিরাপত্তা নেই বলে মন্তব্য করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব ইউনুস মৃধা, মোহাম্মদ মোহন, আব্দুস সাত্তার, সদস্য ও দপ্তরের দায়িত্ব সাইদুর রহমান মিন্টু, খালেদ সাইফুল্লাহ রাজন, অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন, নাদিয়া পাঠান পাপনসহ নিউমার্কেট, কলাবাগান ও ধানমন্ডি থানার দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৭ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২৪
টিএ/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।