ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯ মহররম ১৪৪৬

রাজনীতি

সরকার আর বেশিদিন ক্ষমতায় নাই: দুদু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৭ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
সরকার আর বেশিদিন ক্ষমতায় নাই: দুদু

ঢাকা: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু মনে করেন, বর্তমান সরকার তার নিজস্ব কার্যকলাপে প্রমাণ পেয়েছে যে তারা আর বেশি দিন ক্ষমতায় থাকতে পারবে না। তাই জনগণকে গণতন্ত্রের লড়াই চালিয়ে যেতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম হলে জাতীয়তাবাদী জনতা দলের উদ্যোগে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

দুদু বলেন, আমাদের দেশ আমাদেরকেই রক্ষা করতে হবে। গণতন্ত্র আমাদেরকে ফিরিয়ে আনতে হবে। লড়াইটা আমাদেরই করতে হবে। আমরা ১৫-১৬ বছর ধরে যে লড়াইটা করছি ঐক্যবদ্ধভাবে চালিয়ে যেতে হবে। তাহলে আমার বিশ্বাস, আমি নিশ্চিত এ সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না।

ছাত্রদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, এ সরকার আর বেশিদিন ক্ষমতায় নাই। সরকার নিজেই তার কার্যক্রমে প্রমাণ করেছে। তিনি (শেখ হাসিনা) ভারতে গিয়েছিলেন। সেখানে তিনি তিস্তার পানি আনতে পারতেন; সীমান্তে হত্যার কথা বলতে পারতেন। কিন্তু তিনি বলেন নাই। তিনি ভুলে গেছেন। তিনি আসলে ভ্রমণ করতেই গিয়েছিলেন।

দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান যেকোনো মুহূর্তে দেশে ফিরতে প্রস্তুত বলেও উল্লেখ করেন দুদু। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, দেশ নায়ক তারেক রহমান যখনই এদেশের মাটিতে পা দেবেন তখনই ফ্যাসিবাদ নিশ্চিহ্ন হবে। তিনি ফ্যাসিবাদকে কবরস্থ করার জন্য আসবেন। তিনি তৈরি হয়ে আছেন। যেকোনো মুহূর্তে আসতে পারেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, তিনি আমাদেরকে সম্মানিত করেছেন, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি শিক্ষার অগ্রদূত। তিনি কথা দিয়েছিলেন ক্ষমতায় আসলে পাঁচ হাজার টাকা কৃষকদের সুদ, ঋণ মওকুফ করবেন, তিনি করেছিলেন। তিনি সারের দাম কমিয়েছিলেন। দেশকে রক্ষা করেছিলেন। আর বর্তমান যারা ক্ষমতায় আছে তারা দেশের সর্বভৌমত্বকে রক্ষা করতে পারছেন না। ভাবা যায়, বার্মা আমাদের উপর আক্রমণ করে!

কৃষকদলের সাবেক আহ্বায়ক বলেন, শহীদ জিয়াউর রহমান নিরহংকার মানুষ ছিলেন। তিনি কখনো কারও বিরুদ্ধে কটূক্তি করেননি। আজ যারা শাসক আছে, তারা যেভাবে তার বিরুদ্ধে সমালোচনা করে, যে ভাষায় সমালোচনা করে এটা দুঃখজনক।

জনতা দলের সভাপতি রায়হানুল ইসলাম রাজু সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান লায়ন ফারুক রহমান, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৬ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
ইএসএস/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।