ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

তারার ফুল

দেশীয় চলচ্চিত্র সালতামামি ২০১৫ (১)

সংখ্যা-সাফল্যে এগিয়ে শাকিব, কিন্তু…

সোমেশ্বর অলি, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০১৫
সংখ্যা-সাফল্যে এগিয়ে শাকিব, কিন্তু… শাকিব খান/ছবি: নূর/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

২০১৫ সালে এখন পর্যন্ত মুক্তি পেয়েছে মোট ৫৮টি ছবি। বছর শেষ হওয়ার আগে আরও তিন-চারটি মুক্তি পাওয়ার কথা।

ঢালিউডে মুক্তিপ্রাপ্ত এসব ছবির তারকা ও এগুলোর প্রবণতা, সাফল্য-ব্যর্থতার নিরিখে তৈরি করা হয়েছে কয়েকটি প্রতিবেদন। বাংলানিউজের বিনোদন বিভাগে ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হবে এগুলো। আজ রয়েছে প্রথম কিস্তি।

ঢালিউডের সবচেয়ে দামি নায়ক শাকিব খান এক যুগ ধরে ব্যবসাসফল ছবি উপহার দিচ্ছেন। পাশাপাশি বছরজুড়ে ছবি মুক্তির দিক দিয়েও তিনি এগিয়ে। এ বছরও ব্যতিক্রম হয়নি। ২০১৫ সালে শাকিব অভিনীত পাঁচটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। এর মধ্যে অন্তত তিনটি পেয়েছে ব্যবসায়িক সাফল্য। তবে এগুলোতে ঘুরেফিরে পুরনো শাকিবকেই পাওয়া গেছে।

এ বছর শাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বী নায়ক হিসেবে ছিলেন আরিফিন শুভ, ইমন, নিরব, বাপ্পি, সাইমন প্রমুখ। সংখ্যায় তারা শাকিবের কাছাকাছি। অন্যদিকে কোনো নায়িকারও শাকিবের সমান ছবি মুক্তি পায়নি।  

মুক্তির ক্রমানুসারে শাকিবের ছবিগুলো হলো-‘এই তো প্রেম’, ‘দুই পৃথিবী’, ‘লাভ ম্যারেজ’, ‘আরও ভালোবাসবো তোমায়’ এবং ‘রাজা বাবু’। শাকিবের বছর শুরু হয় পুরনো ছবি দিয়ে। সোহেল আরমান পরিচালিত প্রথম ছবি ‘এই তো প্রেম’-এ শাকিবের নায়িকা ছিলেন বিন্দু। একাধিক গান শ্রোতাপ্রিয়তা পেলেও ছবিটির ব্যবসায়িক সাফল্য তেমন নেই। তবে শাকিবের ব্যতিক্রম অভিনয় প্রশংসা কুঁড়িয়েছে।

এরপর মুক্তি পায় কিং খানের ‘দুই পৃথিবী’। এফ আই মানিক পরিচালিত ছবিটিতে শাকিবের নায়িকা অপু বিশ্বাস। এই জুটির ছবি মানেই বাড়তি দর্শক। হলোও তা-ই। মোটামুটি ব্যবসা করেছে ছবিটি।

‘লাভ ম্যারেজ’ ছবিতে আবার পাওয়া গেলো জনপ্রিয় জুটি শাকিব-অপুকে। এতে শাকিবের ঢাকাইয়া ভাষার সংলাপ ভক্তদের কাছে ছিলো বাড়তি বিনোদনের উপলক্ষ্য। শাহিন সুমন পরিচালিত ছবিটি ভালো ব্যবসা করেছে। এটি মুক্তি পায় গত ঈদুল ফিতরে।

এদিকে রোজার ঈদে মুক্তির ঘোষণা দিয়েও পিছিয়ে যায় ‘আরও ভালোবাসবো তোমায়’। ঈদুল আজহার আগে মুক্তি পায় এটি। এস এ হক অলিক পরিচালিত ছবিটিতে প্রথমবারের মতো শাকিবের নায়িকা হন পরীমনি। ছবিটির একাধিক গান প্রশংসিত হয়। কিন্তু ব্যবসার দিকে কতটা সফল তা জানা যায়নি।

শাকিবের সর্বশেষ ছবি ‘রাজা বাবু’ মুক্তি পায় ঈদুল আজহায়। এতেও যথারীতি তার নায়িকা অপু। এটি পরিচালনা করেন বদিউল আলম খোকন। ছবিটি রেকর্ডসংখ্যক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়ে আলোচিত হয়, আশানূরূপ ব্যবসাও করে।

কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় গড়ে ৫-৬টি ছবি মুক্তি পাচ্ছে শাকিবের। যদিও তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন- বছরে মানসম্পন্ন দু’তিনটির বেশি ছবিতে অভিনয় করবেন না। সে হিসেবে এ বছরও সংখ্যাটা তার দেওয়া প্রতিশ্রতির ঘরে থাকেনি। আর নকল গল্পের কারণে মান নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন।   

এ বছরের পাঁচটি ছবির গল্প, গান ও চিত্রায়ণ বিশ্লেষণ করে পুরনো শাকিবকেই পাওয়া গেছে, বৈচিত্র্য নেই তেমন। মুক্তিযুদ্ধ ও প্রেমের ছবি ‘এই তো প্রেম’ বাদ দিলে শাকিব চেনা বলয় থেকে বের হতে পারেননি পুরো বছর জুড়ে। আর ছবির সাফল্য বা ব্যবসার দিক দিয়ে এবারও তার সঙ্গী অপু বিশ্বাস।

এ ছাড়া শাকিব খান বছরজুড়ে আলোচনায় ছিলেন নানা কারণে। এ বছর তিনি কয়েকজন তরুণ নির্মাতার চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়ে কাজ করছেন। দৃশ্যধারণের শুরু থেকেই এগুলো আলোচিত। তাকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনাও তুঙ্গে ছিলো ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে। কিছুদিন আগে প্রয়াত চলচ্চিত্রকার চাষী নজরুল ইসলামের শেষ ছবি ‘অন্তরঙ্গ’ মুক্তি উপলক্ষে দর্শকদের এফডিসিতে আহ্বান করেন এই নায়ক। নির্ধারিত দিনে এফডিসিতে ছুটে আসেন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের শাকিবভক্তরা। পরে জানা যায়, শাকিব আগেই অনুষ্ঠানটি বাতিল ঘোষণা করেছিলেন। এতে বিতর্ক তৈরি হয়।  

আগামীকাল (২ ডিসেম্বর) বাংলানিউজের বিনোদনে পড়ুন :
* চলচ্চিত্র সালতামামি ২০১৫ (২) : শাকিবময় অপু, এগিয়ে পরী, সঙ্গে মাহি

বাংলাদেশ সময়: ১৭২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০১৫
এসও/জেএইচ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তারার ফুল এর সর্বশেষ

welcome-ad