ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

তারার ফুল

দেশীয় চলচ্চিত্র সালতামামি ২০১৫ (২)

শাকিবময় অপু, বাঁকবদলে মাহি, সংখ্যায় এগিয়ে পরী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২, ২০১৫
শাকিবময় অপু, বাঁকবদলে মাহি, সংখ্যায় এগিয়ে পরী (বাঁ থেকে) অপু বিশ্বাস, মাহিয়া মাহি ও পরীমনি/ছবি: নূর- বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

২০১৫ সালে এখন পর্যন্ত মুক্তি পেয়েছে মোট ৫৮টি ছবি। বছর শেষ হওয়ার আগে আরও তিন-চারটি মুক্তি পাওয়ার কথা।

ঢালিউডে মুক্তিপ্রাপ্ত এসব ছবির তারকা ও এগুলোর প্রবণতা, সাফল্য-ব্যর্থতার নিরিখে তৈরি করা হয়েছে কয়েকটি প্রতিবেদন। বাংলানিউজের বিনোদন বিভাগে ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হবে এগুলো। আজ রয়েছে দ্বিতীয় কিস্তি।

অপু বিশ্বাস ‘স্লিম’ হয়ে ফিরেছেন, এই বার্তাটা অনেক আগেই পেয়েছিলেন চলচ্চিত্রপ্রেমীরা। এ বছর শাকিব খানের নায়িকা হিসেবেই দর্শক তাকে পেয়েছে রূপালি পর্দায়। বরাবরের  মতো এই জুটির রসায়ন ‘হিট’ তকমাও পেয়েছে। অপু ফিরে এসে এবং একজনের বিপরীতেই কাজ করে প্রমাণ করছেন, তিনি শাকিবেরই নায়িকা!

অপুর তিন ছবি ‘দুই পৃথিবী’, ‘লাভ ম্যারেজ’, ‘রাজা বাবু’র দর্শক বছরের অন্য ছবিগুলোর চেয়ে বেশি। শাকিবের নায়িকা হিসেবে এই সুবিধাটা তিনি উপভোগ করছেন নিশ্চয়ই! গত দু’এক বছরের মতো সংখ্যার দিক দিয়ে এবারও পিছিয়ে পড়েছেন এই নায়িকা।

অপুকে টপকে গেছেন নবাগতা পরীমনি। অভিষেক বছরেই এই সুন্দরীর ছয়টি ছবি মুক্তি পেয়েছে। অপুর ক্যারিয়ারের শুরুর দিকেও সংখ্যার এমন আধিক্য ছিলো। তবে অপুর মতো সাফল্য ধরা দেয়নি তার হাতে। পরীর অভিষেক ছবি ‘ভালোবাসা সীমাহীন’। এরপর বছরজুড়ে পর্যায়ক্রমে বড়পর্দায় এসেছে তার ‘পাগলা দিওয়ানা’, ‘আরো ভালোবাসবো তোমায়’, ‘লাভার নাম্বার ওয়ান’, ‘নগর মাস্তান’, ‘মহুয়া সুন্দরী’। পরী এগুলোতে প্রতিষ্ঠিত নায়ক পেয়েছেন মাত্র দু’জন। তারা হলেন শাকিব খান ও বাপ্পি।

ব্যবসার দিক দিয়ে পরীর ছবিগুলো উল্লেখ করার মতো নয়। তবে তাকে ঘিরে আলোচনা-সমালোচনা ছিলো চোখের পড়ার মতো। মুক্তি জটিলতায় থাকা ‘রানা প্লাজা’র নানা খবর পরীকে আলোচনায় রেখেছে সারাবছর। অন্যদিকে সর্বশেষ ছবি ‘মহুয়া সুন্দরী’ পরীকে প্রত্যাশিত খ্যাতি এনে দিতে ব্যর্থ হয়েছে। শিডিউল ফাঁসানো, সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্ব্যাবহার এবং একটি অনলাইন পত্রিকার বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে সমালোচিত হয়েছেন তিনি।

এদিকে ‘অগ্নি’খ্যাত নায়িকা মাহিয়া মাহির বছরটা কেটেছে মোটামুটি। ২০১৫ সালকে তার জন্য বাঁকবদলের বলা যায়। মাহির আবিষ্কারক প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে বিচ্ছেদ, ফেরা না ফরার গুঞ্জন, ভিডিও স্ক্যান্ডাল, চলচ্চিত্র ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা, হঠাৎ ছবি কমে যাওয়া, এক প্রযোজকের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন- এমন বেশকিছু নেতিবাচক দিক সামাল দিতে হয়েছে তাকে। মাহির বাঁকবদলের ছবি ‘কৃষ্ণপক্ষ’ এ বছরই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। প্রয়াত কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাসের নায়িকা হয়ে বছরের মাঝামাঝি নতুন করে আলোচনায় আসেন তিনি।

এ বছর মাহির মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির তালিকা এমন- ‘বিগ ব্রাদার’, ‘ওয়ার্নিং’ এবং ‘অগ্নি-২’। এর মধ্যে ‘অগ্নি-২’ ছিলো তার জন্য ধামাকা! অন্য ‍দুটি গড়পরতা। অবশ্য জাজের বাইরের ছবি সেগুলো। সঙ্গত কারণেই প্রশ্ন উঠতে পারে, তাহলে কী জাজের বাইরে মাহি ঠিক জ্বলে উঠতে পারছেন না? উত্তরটা মিলতে পারে ২০১৬ সালে!

আগামীকাল (৩ ডিসেম্বর) বাংলানিউজের বিনোদনে পড়ুন : 
* চলচ্চিত্র সালতামামি ২০১৫ (৩) : শুভর শুভ, আলোচনায় ইমন

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৬ ঘন্টা, ডিসেম্বর ২০১৫
এসও/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তারার ফুল এর সর্বশেষ

welcome-ad