ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

বিএনপি

‘উনি কামরুলের পোলার বাসায় বসে আছেন’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০১৬
‘উনি কামরুলের পোলার বাসায় বসে আছেন’ ছবি: রানা-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে জাতীয় নেতাদের বাসায় গিয়ে কথা বলার পরামর্শ উপেক্ষা করায় খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ‘উনি গুলশানে কামরুলের পোলার বাসায় বসেই আছেন’।

ঢাকা: দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে জাতীয় নেতাদের বাসায় গিয়ে কথা বলার পরামর্শ উপেক্ষা করায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার কড়া সমালোচনা করেছেন কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী।

তিনি বলেছেন, ‘পরামর্শ উপেক্ষা করে উনি গুলশানে কামরুলের পোলার বাসায়ই বসে আছেন’।


 
শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী।
 
মজলুম জননেতা মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘ভাসানী অনুসারী পরিষদ’ এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।
 
কাদের সিদ্দিকী বলেন, জিয়াউর রহমান আমার বাসায় ১১বার গিয়েছিলেন। আমিও খালেদা জিয়ার বিশেষ আমন্ত্রণে বেশ কয়েকবার তার বাসায় গিয়েছি। আমি তাকে পরামর্শ দিয়েছিলাম, আপনি ড. কামাল হোসেনের বাসায় যান। বি চৌধুরীর বাসায় যান। আ স ম আব্দুর রবের বাসায় যান। জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বাসায় যান। তাদের সঙ্গে কথা বলেন। কেউ যদি কথা বলতে না চান, আপনি জনগণকে দেখান, আপনার সঙ্গে তারা কথা বললেন না।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘কিন্তু উনি কোথাও যাবেন না। গুলশানে কামরুলের পোলার বাসায় বসেই আছেন। ’
 
ক্ষমতার দাপট দেখালে কী পরিণতি হয়- তার উদাহরণ দিতে গিয়ে বঙ্গবীর বলেন, একদিন বের হয়ে দেখি রাস্তা বন্ধ। জিজ্ঞেস করলাম কী হয়েছে? আমাকে বলা হলো তারেক রহমান যাচ্ছেন। টানা ৪০মিনিট আমাকে দাঁড় করে রাখা হলো। সেদিন তার বহরে পাজেরো-ই ছিল ২৮টি। আজ তার কী পরিণতি! আজ যারা ক্ষমতার দাপট দেখাচ্ছেন, তাদের একই পরিণতিও অনিবার্য।
 
সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, ৭ কোটি বাঙালিকে পাকিস্তান সরকার দাবিয়ে রাখতে পারে নি। আজ ১৮ কোটি জনগণকেও আপনারা দাবিয়ে রাখতে পারবেন না। সুতরাং আলোচনায় বসুন।
 
ভাসানী পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরী, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য হায়দার আকবর খান রণো, অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী, ভাসানী পরিষদের কার্যনির্বাহী সভাপতি ড. জসিম উদ্দিন আহমদ, সাংবাদিক মো. মাহফুজুল্লাহ প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০১৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০১৬
এজেড/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad