ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

বিএনপি

কে হচ্ছেন উত্তরে ২০ দলের মেয়র প্রার্থী?

অন্তু মুজাহিদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬০৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০১৮
কে হচ্ছেন উত্তরে ২০ দলের মেয়র প্রার্থী?

ঢাকা: আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন উপ-নির্বাচনে তফসিল ঘোষণার বেশ আগে থেকেই আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন আতিকুল ইসলাম। অন্যদিকে এখনও প্রার্থী চূড়ান্ত করতে পারেনি ২০ দলীয় জোট।

সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব জানিয়েছিলেন, নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণার পর জোট তাদের প্রার্থী চূড়ান্ত করবে।

সোমবার (৮ জানুয়ারি) রাতে গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন খালেদা জিয়া।

 

বৈঠকের মূল এজেন্ডা ছিল ডিএনসিসির উপ-নির্বাচন। বৈঠকে ২০ দলীয় জোট এককভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিলেও জোটের প্রার্থী কে হবেন তা চূড়ান্ত হয়নি।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, জোটের শরিক জামায়াত মেয়র পদে একক প্রার্থী ঘোষণা করে প্রচার প্রচারণা শুরু করায় জোটের শরিকরা এর তীব্র সমালোচনা করেছে। এ সময় জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সদস্য আব্দুল হালিম জোট প্রধান ও সকল দলের নেতাদের আশ্বস্ত করে জানান যে, জোট যে সিদ্ধান্ত দেবে তারা তা মেনে নেবে।

অপরদিকে, বৈঠকে জোটের প্রার্থী কে হবেন তা নিয়ে বিস্তর আলোচন হলেও প্রার্থী চূড়ান্ত হয়নি। নেতৃবৃন্দ্ব প্রার্থী হিসেবে বেশ কয়েকজনের নাম প্রস্তাব করলেও তাবিথ আউয়ালকেই যোগ্য বলে মনে করছেন অধিকাংশ শরিক দল। সবশেষে জোটের নেতারা জোটগতভাবে উত্তর সিটিতে একক প্রার্থী দেবে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়ে প্রার্থী চূড়ান্তের ভার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার হাতে ন্যস্ত করেন। এমনকি নেত্রী যাকে মনোনীত করবেন তার পক্ষে প্রচার ও প্রচারণা চালাবেন বলেও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ২০ দলীয় জোটের নেতা।

তাবিথ আউয়াল বিগত নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ এনে মাঝপথে নির্বাচন বর্জন করেন। সেই নির্বাচনে তাবিথ ছিলেন প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী। সেই হিসেবে জোটের প্রধান তাবিথকে যোগ্যপ্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করতেই পারেন।

কিছুদিন আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তাবিথ আউয়ালের পিতা বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু তাবিথকে যোগ্যপ্রার্থী আখ্যায়িত করে বলেন, ইয়াং প্রার্থী হিসেবে তাবিথ মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্য।

বিএনপি সূত্রে জানা যায়, উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তাবিথ আউয়াল, বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুমীন ফারাহানা, বিএনপির বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা শাকিল ওয়াহেদ, মহানগর উত্তর বিএনপির সভাপতি এম এ কাইয়ূম, বিজেপির চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থ, জামায়াতের সেলিম উদ্দীনসহ অনেকে মেয়র পদে জোটের প্রার্থী হতে ইচ্ছুক। তবে কে প্রার্থী হবেন তা নির্ধারণ করবেন বিএনপি প্রধান।

বিএনপিসহ জোটের সিনিয়র নেতারা মনে করছেন, নেত্রী প্রার্থী চূড়ান্তের ক্ষেত্রে মেধাবী, ত্যাগী, ব্যক্তিত্ববোধ সম্পন্ন, ক্লিন ইমেজ রয়েছে এমন তরুণ নেতৃত্বকেই প্রাধান্য দেবেন।

সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বাংলানিউজকে বলেন, ২০১৫ সালে জোট থেকে আমাকে যে উদ্দেশ্যে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল তা পূরণ হয়নি। যেহেতু এটা উপ-নির্বাচন, জোট যদি আমাকে মনোনীত করে আমি সেই উদ্দেশ্য পূরণে কাজ করবো।

রুমিন ফারহানা বলেন, পার্টি যদি চায় তাহলে আমি নির্বাচন করবো। এটা যেহেতু হাইকমান্ডের ব্যাপার। তবে আমি মনে করি, হাইকমান্ড যোগ্য, ত্যাগী নেতৃত্বকেই অগ্রাধিকার দেবে।

আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা না দিলেও ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগ থেকে ‘গ্রিণ সিগনাল’ পেয়ে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন ব্যবসায়ী আতিকুল ইসলাম। এদিকে জাতীয় পার্টি মেয়র পদে পার্থী দেবে না বলে ঘোষণা দিলেও ইসলামী ঐক্যজোট তাদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে।

প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক গত ৩০ নভেম্বর মারা গেলে আসনটি শূন্য ঘোষণা করে ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে উপ-নির্বাচনের ঘোষণা দেয় নির্বাচন কমিশন। মেয়র পদে উপ-নির্বাচনের সঙ্গে সঙ্গে ডিএনসিসি ও ডিএসসিসিতে নতুন যুক্ত হওয়া ৩৬টি ওয়ার্ড এবং ১২টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০১৭
এএম/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।