ঢাকা, রবিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬ রজব ১৪৪৪

ক্রিকেট

জয়-শান্তর ব্যাটে বাংলাদেশের দিন

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২২
জয়-শান্তর ব্যাটে বাংলাদেশের দিন

সকালের সেশনে নিউজিল্যান্ডকে অলআউট করে ব্যাটিংয়ে ভালো দিন কাটলো বাংলাদেশের। সাদমান ইসলাম ও মাহমুদুল হাসান জয়ের ব্যাটে দারুণ শুরু পায় সফরকারীরা।

এরপর নাজমুল হাসান শান্ত ও জয় মিলে ১০০-এর বেশি রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশকে নিয়ে বসান চালকের আসনে। দুই ব্যাটারই দেখা পান ফিফটির।

বে ওভালের মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে সিরিজের প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিন রোববার সকালে ব্যাট করতে নেমে প্রথম সেশনেই গুটিয়ে যায় কিউইদের প্রথম ইনিংস। আগের দিন ৫ উইকেট হারিয়ে ২৫৮ রান করা দলটি আজ ৩২৮ রানে অলআউট হয়েছে। জবাবে ২ উইকেট হারিয়ে দিন শেষে ১৭৫ রান নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। সফরকারীরা এখনও ১৫৩ রানে পিছিয়ে।

আগের দিন ৩২ রানে অপরাজিত হেনরি নিকোলস আজ থেমেছেন ৭৫ রানে। তবে এর আগে তাকে একপ্রান্তে রেখে একে একে বিদায় নিয়েছেন ৪ কিউই ব্যাটার। অর্থাৎ ৭০ রানে শেষ ৫ উইকেট হারিয়েছে তারা। বল হাতে বাংলাদেশের শরিফুল ইসলাম ও মেহেদী হাসান মিরাজ তুলে নিয়েছেন ৩টি করে উইকেট। ২ উইকেট গেছে অধিনায়ক মুমিনুলের দখলে। আর ১ উইকেট ইবাদত হোসেনের।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের দুই ওপেনার সাদমান ও জয় মিলে তুলে ফেলেন ৪৩ রান। কিন্তু এই জুটি থামে নেইল ওয়াগনারের বলে। ইনিংসের ১৯তম ওভারে কিউই পেসারের লো ফুল টস বলে ফ্লিক করতে গিয়ে টাইমিংয়ের গড়বড়ে কট অ্যান্ড বোল্ড হন সাদমান (২২)।

সাদমান বিদায় নিলেও নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে রানের চাকা সচল রাখেন আরেক ওপেনার জয়। ক্যারিয়ারের মাত্র দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামা এই তরুণ ব্যাটার শান্তকে নিয়ে ১০৪ রানের দারুণ এক জুটি গড়েছেন। এই জুটি গড়ার পথে ফিফটির দেখা পেয়ে গেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও মাহমুদুল হাসান জয়।

কিউই স্পিনার রাচিন রবীন্দ্রের বলে বিশাল এক ছক্কা হাঁকিয়ে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ফিফটি তুলে নেওয়ার পথে শান্ত খেলেছেন ৯০ বল। অন্যদিকে আদর্শ টেস্ট ইনিংস খেলে ফিফটি তুলে নিলেন জয়। ক্যারিয়ারের মাত্র দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নামা এই তরুণ ব্যাটার প্রথম ফিফটির দেখা পেতে খেলেছেন ১৬৫ বল!

ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট ফিফটিকে অবশ্য সেঞ্চুরিতে রূপান্তরিত করতে পারেননি না নাজমুল হোসেন শান্ত। দারুণ খেলতে থাকা এই বাঁহাতি ব্যাটার বিদায় নেন কিউই পেসার নেইল ওয়াগনারের বলে গালিতে ক্যাচ তুলে দিয়ে। ড্রেসিং রুমে ফেরার আগে ১০৯ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় ৬৪ রান করেন শান্ত। তবে জয় ৭০ রানে অপরাজিত থাকেন। অধিনায়ক মুমিনুল ব্যাট করছিলেন ৮ রানে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০২, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa