ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

টাকা ফেরত না পেয়ে ভাগ্নি জামাইয়ের হাতে বৃদ্ধা খুন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৩৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
টাকা ফেরত না পেয়ে ভাগ্নি জামাইয়ের হাতে বৃদ্ধা খুন ...

চট্টগ্রাম: নগরের পাঁচলাইশ থানাধীন পশ্চিম ষোলশহর নাজির পাড়ায় বাসা থেকে এক বৃদ্ধা খুনের ঘটনায় ভাগ্নি জামাইয়ের সম্পৃক্ততা পেয়েছে পুলিশ।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ভোরে ভাগ্নি জামাই লিটন কান্তি দে-কে (৪০) ফটিকছড়ি থেকে গ্রেপ্তার করার পর জিজ্ঞাসাবাদে তার মাসি শাশুড়ি মঞ্জু দেবীকে (৫৫) শ্বাসরোধ করে খুন করার কথা স্বীকার করেছে।

এ ঘটনায় মঞ্জু দেবীর ছেলে উজ্জ্বল দেব বাদী হয়ে পাঁচলাইশ থানায় মামলা করেন।

এর আগে শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নাজিরপাড়ার বাসা থেকে মঞ্জু দেবীর মরদেহ উদ্ধার করা হয় এবং তার আরেক ছেলে উত্তম দেবকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ।

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে লিটন জানিয়েছে-শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) খাবারে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে উত্তমকে অচেতন করা হয়। রাত সাড়ে ১১টার দিকে মঞ্জু দেবীকে ঘাড়ে আঘাত করে এবং গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করে। শনিবার সকালে সে পালিয়ে রাঙামাটি চলে যায়, বিকালে রাউজানে নিজের বাড়িতে চলে আসে এবং রাতে ফটিকছড়িতে বোনের বাড়িতে আত্মগোপনে ছিল।

ওসি জানান, মঞ্জু দেবীর কাছে প্রথম দফায় ৯০ হাজার টাকা এবং ২য় দফায় ৫০ হাজার টাকা ধার দিয়েছিল লিটন। ১২ ফেব্রুয়ারি টাকা ফেরত দেওয়ার কথা থাকলেও না পেয়ে সে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে স্বীকার করেছে।  

 বাংলাদেশ সময়: ১১৩০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪ 
এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।