ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

খুনের বদলা নিতেই খুন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২২
খুনের বদলা নিতেই খুন

চট্টগ্রাম: একযুগ আগে খুন হওয়া এরশাদ নামে এক ব্যক্তির হত্যা মামলায় স্বাক্ষ্য দিয়েছিলেন লায়লা বেগমের পুত্র ও স্বামী। এর প্রতিশোধ নিতেই সম্প্রতি আসামীরা জামিনে এসে হামলা চালায় লায়লা ও তার পুত্রের ওপর।

এতে মৃত্যু হয় লায়লা বেগমের।  

লায়লা বেগমের হত্যার ঘটনায় গত ১০ জানুয়ারি রাতে চট্টগ্রামের মীরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল এলাকা থেকে ইমরান নামে একজনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

পরে জিজ্ঞাসাবাদে ‘প্রতিশোধ নিতেই এ হামলা বলে স্বীকার করেন ইমরান।  

গ্রেফতার মো. ইরান (৩৩) চট্টগ্রাম নগরের ইপিজেড থানার মাইলের মাথা এলাকার মৃত আবুল বশরের ছেলে।  

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে র‌্যাব-৭ এর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান চট্টগ্রাম জোনের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ জানান, ২০০৯ সালের ১১ এপ্রিল ইরান ও তার দুই ভাই আরমান এবং ইমতিয়াজ মিলে এরশাদকে ছুরিকাঘাত করেন। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মৃত্যুবরণ করেন। বাড়ির সীমানা নিয়ে তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এরশাদ হত্যার পর এ নিয়ে আদালতে সাক্ষ্য দেন লায়লা বেগমের স্বামী ও পুত্র। এতে ক্ষুব্ধ হয় ইরানের পরিবার।

তিনি জানান, এরশাদ খুনের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় তিন ভাই এক বছরেরও বেশি সময় জেল খেটে জামিনে বের হয়। এরপর থেকে তারা লায়লা বেগমের পরিবারকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে।  

‘পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ১ জানুয়ারি সকালে ইরান, আরমান ও ইমতিয়াজ মিলে লায়লা বেগম এবং তার ছেলে ওমর ফারুকের ওপর হামলা করে। এতে গুরুতর আহত লায়লা ৬ জানুয়ারি চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ঘটনার পর তারা পালিয়ে গেলেও ইরানের অবস্থান শনাক্ত করে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ’

বাংলাদেশ সময়: ২১০২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২১
এমআর/টিসি
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa