ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

লোকালয়ে কালোমুখো হনুমান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২১ ঘণ্টা, জুলাই ১৭, ২০২৩
লোকালয়ে কালোমুখো হনুমান

বরিশাল: বরিশালে বিপন্ন প্রজাতির বেশ কয়েকটি কালোমুখো হনুমান বেশ কয়েকদিন ধরে দলছুট হয়ে খাদ্যের সন্ধানে লোকালয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এদের মধ্যে এক জোড়া বরিশাল জেলার বানারীপাড়া উপজেলার সন্ধ্যা নদীর পূর্ব পাড়ের পৌর শহরসহ উপজেলার সলিয়াবাকপুর, সদর ও চাখার ইউনিয়ন এবং অপরজোড়া সন্ধ্যা নদীর পশ্চিম পাড়ের বাইশারী, ইলুহার, উদয়কাঠি, সৈয়দকাঠি ও বিশারকান্দি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় বিচরণ করছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

সোমবার (১৭ জুলাই) দুপুরে বানারীপাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রাহাদ সুমন জানিয়েছেন, খাদ্যের সন্ধানে বনের হনুমান লোকালয়ে আসায় উৎসুক মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন হনুমান দেখতে। অনেকেই আবার আবেগতাড়িত হয়ে খাবারও দিচ্ছেন। সবশেষ বানারীপাড়া থানা চত্বরে এক জোড়া কালোমুখো হনুমানের দেখা মিলেছে। কালোমুখো হনুমান জোড়াকে থানা কমপ্লেক্সের বাগানের ঢেঁড়স, গাছের পেয়ারাসহ বিভিন্ন ফল ও সবজি খেতে দেখা গেছে।

বানারীপাড়া বন্দর বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সুব্রত লাল কুণ্ডু বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বানারীপাড়ায় আসা কাঁচামালের ট্রাকে উঠে কালোমুখো হনুমানগুলো দলছুট হয়ে সাতক্ষীরা, যশোর কিংবা খুলনার কোনো বন এলাকা থেকে এখানে আসতে পারে।

বানারীপাড়া উপজেলা বন কর্মকর্তা তাহেরুল ইসলাম দলছুট হয়ে লোকালয়ে আসা কালোমুখো দুই জোড়া হনুমানকে কোনো ক্ষতি বা বিরক্ত না করতে সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, হনুমানগুলো লোকালয় থেকে উদ্ধার করে বনাঞ্চলে ছেড়ে দেওয়ার জন্য উদ্যোগ নিতে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে।

বানারীপাড়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা উজিরপুরের প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. গোলাম মাওলা বলেন, কালোমুখো হনুমানগুলো যেহেতু কারও ক্ষতি করছে না, সেহেতু এগুলো যাতে এলাকায় অবাধে বিচরণ করতে পারে সেজন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হবে।

বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ (ওসি) এসএম মাসুদ আলম চৌধুরী বলেন, থানার ভেতরে আমাদের গড়ে তোলা ফল ও সবজি বাগানে এক জোড়া বিপন্ন প্রজাতির কালোমুখো হনুমান এসে পরম আয়েশে ফল ও সবজি খাচ্ছে। এ দৃশ্য দেখে সত্যি আমি খুশি হয়েছি।

বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাতিমা আজরিন তন্বী বলেন, বাংলাদেশে বিপন্ন তালিকায় স্থান পাওয়া প্রাণীদের একটি কালোমুখো হনুমান। এরা দলবদ্ধ হয়ে বসবাস করা বৃক্ষচারী শান্তি প্রিয় প্রাণী।  

বিপন্ন প্রজাতির এ কালোমুখো হনুমান রক্ষায় সবাইকে দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এ ব্যপারে উপজেলা প্রাণিসম্পদ ও বন কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, জুলাই ১৭, ২০২৩
এমএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।