ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

ইউএসএআইডির কাছে আর্থিক-কারিগরি সহায়তা চাইলেন পরিবেশমন্ত্রী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৫, ২০২৩
ইউএসএআইডির কাছে আর্থিক-কারিগরি সহায়তা চাইলেন পরিবেশমন্ত্রী

ঢাকা: জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনা এবং মুজিব জলবায়ু সমৃদ্ধি পরিকল্পনা বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় এবং পর্যাপ্ত আর্থিক ও প্রযুক্তিগত সহায়তা দিতে ইউএসএআইডির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন।  

একইসঙ্গে বাংলাদেশ ফরেস্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের ল্যাব সুবিধার উন্নয়ন, বায়োটেকনোলজি, বায়োসেফটি, ক্যাপাসিটি ডেভেলপমেন্ট, ইকোসিস্টেম সার্ভিস ভ্যালুয়েশনে সহায়তার আহ্বান জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ইউএস এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ইউএসএআইডি) বাংলাদেশ মিশনের নতুন মিশন ডিরেক্টর রিড এশলিম্যানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে পরিবেশমন্ত্রী এসব আহ্বান জানান।

ইউএসএআইডি মিশন ডিরেক্টর বলেন, তার সংস্থা সারা দেশে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে এর পাচার ও চোরাশিকার প্রতিরোধ, পার্বত্য চট্টগ্রামে ওয়াটারশেড সহ-ব্যবস্থাপনা প্রকল্পে কাজ করবে। তারা জৈবপ্রযুক্তি, খাদ্য নিরাপত্তা, বায়োটেক পণ্য, কৃষি পণ্য, জলবায়ু নীতি সহায়তা প্রকল্প, সহযোগিতা ও গবেষণা এবং গ্রিন হাউস গ্যাস নির্গমন কমাতে সহায়তা করবে। তারা টেকসই জীবিকার জন্য সুবিধাভোগী, স্থানীয় কৃষকদের জীবিকা নিশ্চিতে কাজ করতে ইচ্ছুক।

ইউএসএআইডি পরিচালক বলেন, তারা জলাভূমি, সুন্দরবন, পার্বত্য চট্টগ্রাম এবং সিলেট অঞ্চলে টেকসই জলবায়ু কর্ম, বাস্তুতন্ত্র এবং জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের জন্য সহায়ক হতে চান।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফারহিনা আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ইকবাল আবদুল্লাহ হারুন, অতিরিক্ত সচিব (পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন) সঞ্জয় কুমার ভৌমিক, অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) ফাহমিদা খানম এবং ইউএসএআইডির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ৫, ২০২৩
জিসিজি/আরএইচ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।