ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

ওমরায় গিয়ে ১১ বছর পর হারানো ছেলেকে ফিরে পেলেন মা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০২৪
ওমরায় গিয়ে ১১ বছর পর হারানো ছেলেকে ফিরে পেলেন মা

সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধের মধ্যে ভয়াবহ বোমা হামলায় ছোট্ট ছেলেকে হারিয়ে ফেলেন তার মা-বাবা। ছেলেকে দামেস্কসহ সিরিয়ার নানা প্রান্তরে খুঁজেছেন তারা।

কিন্তু ব্যর্থ হন। তাদের ভাবনায় আসে, হয়ত যুদ্ধে শহীদ হয়ে গেছে ছেলে।

১১ বছর ধরেই খোঁজাখুঁজির পর ছেলেকে পেলেন এ দম্পতি। তবে সিরিয়ায় নয় সৌদি আরবের ওমরাহ পালনে গিয়ে ছেলের সঙ্গে দেখা হয়ে যায় তাদের।

বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এমন ঘটনা জানিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ।

সেই প্রতিবেদনকে ঘিরে এ ঘটনার একটি ভিডিওক্লিপ ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিকমাধ্যমে।  

মা ও ছেলের আলিঙ্গনের সেই আবেগঘন দৃশ্য নেটিজেনদের হৃদয় নাড়া দিয়েছে।

গালফ নিউজ বলছে, এগারো বছর আগে সিরিয়ার সেই গৃহযুদ্ধে বোমা হামলায় হারিয়ে যাওয়ার পর বিভিন্ন স্থানে আশ্রয়ের পর এক দম্পতির কাছে ঠাঁই হয় ওই শিশুর। তারা নিজেদের সন্তানের মতোই বড় করেন শিশুটিকে। চলতি রমজানে ওমরাহ পালনে সৌদি আরবে যান সেই দম্পতি। ভাগ্যক্রমে একই সময়ে ওমরাহ করতে আসেন শিশুটির মা।

সেখানে হঠাৎ করেই তাদের দেখা হয়। সন্তানকে ফিরে পেয়ে যেন নতুন করে প্রাণ ফিরে পান তার মা।  

জানা গেছে, সন্তানের মতো বড় করলেও আশ্রয়দাতা পরিবারের ইচ্ছা ছিল, শিশুটি যেন তার মাকে খুঁজে পায়। মায়ের আদর-ভালোবাসা থেকে যেন সে বঞ্চিত না হয়। আর এর জন্য ছেলেটির ছবি ও তথ্য বেশ কিছু সংস্থার ওয়েবসাইটেও দিয়েছিল পরিবারটি।  

যখন উভয় পরিবার মক্কায় ওমরাহ পালন করছিল এসব ওয়েবসাইটের তথ্য পান ছেলেটির মা। ছেলেকে শনাক্তের পর ওয়েবসাইট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে মা-সন্তানের পুনর্মিলনের ব্যবস্থা করা হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৬ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০২৪
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।