ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

আইন ও আদালত

বাগেরহাটে পর্নোগ্রাফি মামলায় কনস্টেবল কারাগারে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
বাগেরহাটে পর্নোগ্রাফি মামলায় কনস্টেবল কারাগারে

বাগেরহাট: বাগেরহাটে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আল-আমিন শেখ নামের এক পুলিশ কনস্টেবলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।  

সোমবার (২২ এপ্রিল) আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

 

এর আগে রোববার বাগেরহাট আদালতে পর্নোগ্রাফি মামলা দায়েরে করেন এক তরুণী। ওইদিনই বাগেরহাট পুলিশ লাইন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে বাগেরহাট মডেল থানা পুলিশ।  

গ্রেপ্তার আল আমিন খুলনা জেলার তেরখাদা উপজেলার মোজাফফর শেখের ছেলে। তিনি বাগেরহাট সদর থানায় পুলিশ কনস্টেবল পদে কর্মরত আছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, আদালতে মামলার বাদী ওই তরুণীর পারিবারিক একটি মামলা ছিল। ওই মামলার সূত্রে পুলিশ কনস্টেবল আল-আমিন শেখের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। ওই মামলায় তরুণীর পক্ষে কাজ করার আশ্বাস দেন আল আমিন। পরে সেই সুযোগে তাকে বিয়ের প্রলোভনে এবং একটি ভুয়া কাবিন নামায় স্বাক্ষর নেয় আল আমিন। পরে তারা দুজনে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বাগেরহাটের একটি আবাসিক হোটেলে থাকতেন। এক পর্যায়ে পুলিশ কনস্টেবল তরুণীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও ধারণ করেন মুঠোফোনে। পরে ভুক্তভোগী তরুণী স্ত্রী হিসেবে শ্বশুরবাড়ি নিয়ে যেতে আল আমিন চাপ দেন। এ সময় আল আমিন জানায় তাদের কোনো বিয়ে হয়নি, ওটা ভুয়া ছিল। পরে ওই তরুণীকে শারীরিক সম্পর্ক চালিয়ে নেওয়ার প্রস্তাব দেন এবং বিষয়গুলো কাউকে জানালে ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন আল আমিন। এ ঘটনায় ওই তরুনী বাদী হয়ে বাগেরহাট আদালতে মামলা দায়ের করেন।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান বলেন, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯২৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।