ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩১ মে ২০২৪, ২২ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

৮ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পেল জাতীয় মানবকল্যাণ পদক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
৮ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পেল জাতীয় মানবকল্যাণ পদক

ঢাকা: মানবকল্যাণে অবদান রাখার জন্য আট ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় মানবকল্যাণ পদক প্রদান করেছে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়।
 
সোমবার (২ জানুয়ারি) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের সমাজসেবা অধিদপ্তরে জাতীয় সমাজসেবা দিবস ২০২৩ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা শেষে জাতীয় মানবকল্যাণ পদক তুলে দেওয়া হয়।

সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, সমাজাকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি রাশেদ খান মেমন।
 
আলোচনা সভা শেষে জাতীয় মানবকল্যাণ পদক তুলে দেন সমাজাকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ।  

জাতীয় মানবকল্যাণ পদক পেয়েছেন, সিলেট জেলার আব্দুল জব্বার জলিল, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহ্বাজ আল মামুন সরকার, খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, কাশিয়ানী গোপালগঞ্জের বিশ্বমানব সেবা সংঘ (বৃদ্ধাশ্রম), বীর মুক্তিযোদ্ধা মাজেদা শওকত আলী, অ্যাসপেয়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগাম, বগুড়ার আকবরিয়া লিমিটেড এবং ঢাকার বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন।  

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সমাজাকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেন, বাঙালি ও বাংলার স্বার্থ রক্ষায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন অটল। পাকিস্তানি শাসকরা বঙ্গবন্ধুকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পদ দিতে চেয়েছিল, বঙ্গবন্ধু তাদের সেই পদকে অবহেলা করে বলেছিলেন, আমার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রয়োজন নেই, আমার প্রয়োজন বাংলা ও বাঙালির স্বার্থকে অক্ষুণ্ণ রাখা।

তিনি আরও বলেন, আজকে সমাজসেবা দিবস ২০২৩ উপলক্ষে স্পষ্টভাবে বলতে চাই, যারা কাপুরুষের মতো বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে, তারা দেশের কোনো উন্নয়ন করতে পারেনি। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একসময়ের দুর্ভিক্ষ কবলিত বাংলাদেশ আজ সারা বিশ্বের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে।

১২ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীর ঢেউ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিচলিত হন নাই। বিশ্বের কোনো রাষ্ট্র ১২ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিতে সক্ষম হয় নাই, সক্ষম হয়েছেন শুধু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪২২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২২
আরকেআর/এসআইএস 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।