ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

নিখোঁজ ছেলের অপেক্ষায় মা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
নিখোঁজ ছেলের অপেক্ষায় মা

নীলফামারী: দীর্ঘ পাঁচ বছর পর নিখোঁজ ছেলে আবু হানজালা (৩৪) ফিরছেন মায়ের কোলে। মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে হারিয়ে যান বছর পাঁচেক আগে।

সেই ছেলে মিয়ানমার থেকে ফিরছেন। মা ও প্রতিবেশীরা অধীর অপেক্ষায় আছেন।  

আবু হানজালার বাড়ি নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের শ্বাসকান্দর গ্রামের পাঠানপাড়ায়। তিনি ওই গ্রামের মৃত একরামুল হকের ছেলে। ২০১০ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন হানজালা।
 
বুধবার (২৪ এপ্রিল) আবু হানজালা মিয়ানমারে আটকে পড়া ১৪৪ বাংলাদেশির সঙ্গে দেশটির নৌবাহিনীর জাহাজে করে দেশে ফিরছেন। এই বাংলাদেশিরা বিভিন্ন সময়ে মিয়ানমারে গিয়ে আটকা পড়েছিলেন।  

২০১০ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন হানজালা। ২০১৮ সালের প্রথম দিকে হানজালা নিখোঁজ হওয়ার পর আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

আবু হানজার ভাই আবু তালহা মোবাইলফোনে জানান, পুলিশের কথা মতো আমি এবং আমার বড় ভাই মানিকুল ইসলাম এখন কক্সবাজারে অবস্থান করছি। বুধবার কক্সবাজার সদর মডেল থানার পাশে বিআইডব্লিউটিএ ঘাটে আমাদের যেতে বলেছে পুলিশ। সেখানে আমাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

মা মেহেরুন নেসা বলেন, ছেলেকে ফিরে পাব, এমন আশায় বুক বেঁধেছিলাম। আল্লাহপাক আমার কথা শুনেছে। ছেলের অপেক্ষায় প্রহর গুণছেন তিনি। কখন তার বুকের ধন মানিক বুকে ফিরবে।

বোতলাগাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান জুন জানান, এলাকার একরামুল–মেহেরুন দম্পতির ছেলে আবু হানজালা। প্রায়ই বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ হয়ে যেতেন। এক মাস, দেড় মাস পর গ্রামের লোকজন কোথাও তার দেখা পেয়ে সঙ্গে করে নিয়ে আসতেন। কিন্তু ২০১৮ সালের প্রথম দিকে হানজালা নিখোঁজ হওয়ার পর আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। আবু হানজালা মিয়ানমারে আটকে পড়া ১৪৪ বাংলাদেশির সঙ্গে দেশটির নৌবাহিনীর জাহাজে করে দেশে ফিরছেন। আমি জেনেছি বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সে বাড়িতে আসবে। সেজন্য তার ভাইয়েরা চট্টগ্রামে অবস্থান করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad