ঢাকা, সোমবার, ১১ আষাঢ় ১৪৩১, ২৪ জুন ২০২৪, ১৬ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

বিধিমালা করে অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১২ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২৪
বিধিমালা করে অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা: ব্যাটারিচালিত রিকশা বা অটোরিকশা নিয়ে আইন-বিধিমালা করে নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সড়ক বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

সোমবার (২০ মে) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভায় এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

সভা শেষে বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, অটোরিকশা নিয়ে একটি ঘটনা ঘটেছে। বিভিন্নভাবে পত্রিকায় এসেছে। অটোরিকশাচালকরা নিজেদের পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। যেটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নজরে এসেছে। তিনি সুস্পষ্টভাবে নির্দেশনা দিয়েছেন, অটোরিকশাচালকদের জীবন-জীবিকার বিষয়টি উপেক্ষা করে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না। তাদের জীবিকার বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় নিতে হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন যে, একটি বিধিমালার মাধ্যমে এটিকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সেই বিধিমালায় তাদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। তাদের নির্দিষ্ট এলাকা ভাগ করে দিতে হবে যে এই এলাকার বাইরে তারা চালাতে পারবে না—এরমধ্যে তাদের চালাতে হবে। মহাসড়কে কিংবা বিজি হাব কিংবা সড়কে তারা অটোরিকশা চালাতে পারবেন না, যেতে পারবেন না। কোন কোন সড়কে চলতে পারবে, কী গতিতে তারা যেতে পারবে, সেটা তিনি বলে দিয়েছেন।

একই সঙ্গে কোনো অবস্থাতেই মহাসড়ক কিংবা বড় সড়কে তারা যেতে পারবেন না, সেই বিষয়গুলো নিশ্চিত করে সংশ্লিষ্ট আইন-বিধিমালা যথাযথভাবে সংশোধন কিংবা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি সড়ক বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দিয়েছেন।

অটোরিকশা বন্ধের সিদ্ধান্তের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানতেন না। বিষয়টি তার নজরে আনা হয়নি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যে তোমরা আমাকে জানাওনি কেন? তাদের জীবিকার কী ব্যবস্থা করা হয়েছে, সেই প্রশ্ন রেখেছেন তিনি। তাদের জীবিকার ব্যবস্থা না করে তাদের সম্পর্কে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া যৌক্তিক মনে করেননি প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, আমার সঙ্গে আলোচনা করা হয়নি। আমি জানিনি। আমার সঙ্গে তোমাদের কথা বলা উচিত ছিল। তিনি এভাবেই বলেছেন। তাদের জীবিকার ব্যবস্থা না করে এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নেওয়া যৌক্তিক হয়নি।

তিনি বলেছেন, একটি বিধিমালার মাধ্যমে এটা নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে, তাদের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা করা যেতে পারে। এমনকি তাদের জীবিকা অর্জনের ব্যবস্থা করা যেতে পারে।

অটোরিকশাচালকদের জীবিকার ব্যবস্থা নেওয়ার উদ্যোগ শিগগিরই নেওয়া হবে কিনা; জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার নির্দেশনা সড়ক বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে দিয়েছেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, যেখানে রিকশা বা অটোরিকশার মেশিন তৈরি হয়, সেখানে একটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে রিকশা বা অটোরিকশা ম্যানুয়ালি চলে। এজন্য মেশিনচালিত রিকশার নকশা অ্যাডজাস্ট করছে না। সেজন্য প্রধানমন্ত্রী বলে দিয়েছেন যে, আমাদের ম্যানুয়াল পদ্ধতি থেকে বেড়িয়ে আসার জন্য। একই সঙ্গে মেশিনের সঙ্গে উপযুক্ত একটি কাঠামো সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে নিয়ে একটি মডেল বা কাঠামো তৈরি করে দ্রুত নিয়ে আসেন। যেটা অ্যাক্সিডেন্ট প্রবণতাকে কমাতে ভূমিকা রাখবে সেই নির্দেশনা তিনি দিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১২ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২৪
জিসিজি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।