ঢাকা, রবিবার, ২ আষাঢ় ১৪৩১, ১৬ জুন ২০২৪, ০৮ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

ছেলের সঙ্গে অভিমান করে ফাঁস দিলেন মা!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৪ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০২৪
ছেলের সঙ্গে অভিমান করে ফাঁস দিলেন মা!

গাইবান্ধা: গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় রেজিয়া বেওয়া (৫৫) নামে এক নারী ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেছেন।

ছেলে আনিছুর রহমানের সঙ্গে অভিমান করে রেজিয়া বেওয়া আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

শুক্রবার (২৪ মে) দুপুরে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।  

এরআগে সকালে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের চকশালাইপুর গ্রাম থেকে ওই নারীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।  

মৃত রেজিয়া বেওয়া চকশালাইপুর গ্রামের মৃত বাচ্চা মিয়ার স্ত্রী। দীর্ঘদিন ধরে তিনি মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন।

স্থানীয়রা জানায়, রেজিয়া বেওয়ার ছেলে আনিছুর রহমানের স্ত্রীর সঙ্গে দাম্পত্য কলহ চলছিল। এরই জেরে আনিছুরের স্ত্রী তার বাবার বাড়িতে  অবস্থান করছেন। এ ব্যাপারে মাকে দায়ী করে আনিছুর প্রায়ই রেজিয়ার সঙ্গে খারাপ আচরণ করতেন। ছেলের এ আচরণ সহ্য না করতে পেরে রেজিয়া বেওয়া আগেও কয়েকবার আত্নহত্যার চেষ্টা করেন।

কয়েকদিন আগে ছেলের সঙ্গে অভিমান করে রেজিয়া বেওয়া তার মেয়ের বাড়িতে চলে যান। এরপর বৃহস্পতিবার রেজিয়া বেওয়া নিজ বাড়িতে চলে আসেন।

শুক্রবার সকালে বাড়িতে না পেয়ে তাকে খোঁজাখুজিঁ করেন স্বজনরা। পরে বাড়ির পাশের একটি খড়ের ঘরে রেজিয়া বেওয়ার ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

তাদের অভিযোগ, ছেলে আনিছুর রহমানের সঙ্গে অভিমান করেই রেজিয়া বেওয়া আত্মহত্যা করেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাজু কামাল বলেন, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে রেজিয়া বেওয়ার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রেজিয়া বেওয়া দীর্ঘদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন।

এ ঘটনায় সাদুল্লাপুর থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে। রেজিয়া বেওয়া কি কারণে আত্মহত্যা করেছেন তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৪ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০২৪
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।