ঢাকা, শনিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

স্ত্রীকে হত্যা করে অপহরণ নাটক, স্বামী গ্রেফতার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৭, ২০২২
স্ত্রীকে হত্যা করে অপহরণ নাটক, স্বামী গ্রেফতার

বান্দরবান: বান্দরবানে স্ত্রীকে হত্যার পর অপহরণের নাটক সাজানো স্বামী রেথোয়াইনু মার্মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের থংজামা পাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, স্ত্রী সিংম্যানু মার্মাকে কুপিয়ে হত্যার পর সন্ত্রাসীরা তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছে বলে নাটক সাজিয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বারকে ফোন দিয়ে পালিয়ে যায় রেথোয়াইনু মার্মা। খবর পেয়ে পাড়াবাসী রেথোয়াইনু মার্মার বাসায় গেলে তার স্ত্রীকে মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। পরে পুলিশ এসে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যায়।  

এদিকে সন্ত্রাসীদের হামলা ও স্বামীকে অপহরণের বিষয়টি এলাকাবাসীর কাছে রহস্যজনক মনে হয়। সন্ত্রাসীদের আগমণের কোনো আলামত পাড়াবাসী দেখতে পায়নি এবং নিজের অপহরণের খবর নিজে ফোন দিয়ে জানানোর কারণে সন্দেহ বেড়ে যায় অনেকের। এরপর থেকে পাড়ার বাসিন্দারা পলাতক রেথোয়াইনু মার্মাকে খুঁজতে থাকে এবং বৃহস্পতিবার রাতে তাকে রাজবিলা ইউনিয়নের থংজামা পাড়ার একটি পাহাড়ে দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী পাহাড়টি ঘেরাও করে রাখে। পরে সকালে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
এদিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যার সঙ্গে জড়িত বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।  

বান্দরবানের পুলিশ সুপার জেরিন আক্তার জানান, গৃহবধূকে হত্যার ঘটনায় তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে, তবে কেন হত্যা করেছে এবং এর সঙ্গে আর কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) গভীর রাতে বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের থংজামা পাড়ায় স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছে বলে নাটক সাজিয়ে পালিয়ে যায় স্বামী রেথোয়াইনু মার্মা। পরে পুলিশ গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে এবং অনুসন্ধান শেষে প্রকৃত ঘটনা বের করে স্বামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৭, ২০২২
আরএ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa