ঢাকা, রবিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

এক মামলায় পুরুষ শূন্য গ্রাম!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮৫২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২২
এক মামলায় পুরুষ শূন্য গ্রাম!

নওগাঁ: নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার ঘোষনগর ও নজিপুর ইউনিয়নে তিনটি ভোটকেন্দ্রে ভোট গণনা নিয়ে পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগ, অস্ত্র ছিনতাই ও পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় পত্নীতলা থানায় মামলা হয়েছে। এতে ১১৩ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আড়াই হাজার ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

ফলে পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে পুরো গ্রাম।  

গত ৬ জানুয়ারি এই মামলার প্রধান আসামি ঘোষনগর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) স্বতন্ত্র (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফারজানা পারভীনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এখন পর্যন্ত ফারজানা পারভীনের স্বামী মতিউর রহমানসহ মোট ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

কমলাবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা মাহমুদা জানান,এসব ঘটনায় গ্রামের আড়াই হাজার মানুষের নামে মামলা করেছে পুলিশ। ফলে গ্রামে আর কোনো পুরুষ মানুষ নেই। শুধু মসজিদের ইমাম, মোয়াজ্জিন ছাড়া গ্রামের সব পুরুষ আত্মগোপনে গেছেন। এ অবস্থায় গ্রামের শুধু মেয়ে মানুষের বসবাস। বর্তমানে আমরা সবাই আতঙ্কে মধ্যে আছি। সন্ধ্যা লাগার আগেই নারীরা যে যার মত ঘরে ঢুকে যান।

একই গ্রামের লায়লী বেগম জানান, এই গ্রামে ২ হাজারের বেশি মানুষের বসবাস। পুরুষ শূন্য হওয়ার পাশাপাশি বন্ধ রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ঘটনার পর থেকে কমলাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আর খোলা হয়নি। একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে পাল্টে গেছে পুরো গ্রামের চিত্র।

এরইমধ্যে শুক্রবার (০৭ জানুয়ারি) দিনগত রাতে চেয়ারম্যানের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেন দুর্বৃত্তরা। এতে সামনে একটি গেরেজে রাখা আসবাপত্র, সাইকেলসহ বেশ কিছু মালামাল পুড়ে গেছে।  

গ্রামের নারীরা জানান, পুলিশ আতঙ্কের মধ্যে আগুন লাগানোর বিষয়টি আরও বেশি আতঙ্ক তৈরি করেছে। এমন অবস্থায় গ্রামের মানুষের সার্বিক নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন তারা।

আরও পড়ুন>>

পত্নীতলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাড়িতে আগুন

বাংলাদেশ সময়: ০৮৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০২২
এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa