ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

শৈলকুপায় পৌরভবন ভাঙচুর, মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২২
শৈলকুপায় পৌরভবন ভাঙচুর, মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ

ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহ শৈলকুপায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পৌরসভা ভবনে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ঘটনা ঘটেছে। এসময় আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় একটি মোটরসাইকেলে।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন মহিদুল ইসলাম নামের একজন কর্মচারী।  

শনিবার (০৮ জানুয়ারি) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, পৌরসভা এলাকায় অধিপত্য বিস্তার নিয়ে পৌর মেয়র কাজী আশরাফুল আজম ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ওয়াহিদুজ্জামান ইকুর সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল।

শনিবার বিকেলে শতাধিক লোকজন দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্রের সজ্জিত হয়ে পৌর ভবনে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। পুড়িয়ে দেওয়া হয় পৌরসভার ভিতরে থাকায় একটি মোটরসাইকেল। কুপিয়ে আহত করা হয় মহিদুল নামের পৌরসভার এক কর্মচারীকে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহত মহিদুলকে উদ্ধার করে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে পৌর মেয়র কাজী আশরাফুল আজম বাংলানিউজকে বলেন, আমি শৈলকুপার বাইরে আছি। শুনলাম পৌরসভার হামলা করা হয়েছে। ইকু শিকদারের নেতৃত্বে পৌরসভার হামলা ও অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

ওয়াহিদুজ্জামান ইকু বলেন, পৌরসভায় আমার কোনো লোকজন হামলা চালায়নি। পৌর মেয়রের নিজেদের লোকজন মারামারি করে আমার ওপর দোষারোপ করতে চাচ্ছে।

শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ আসেনি। পৌরসভার মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আমরা মাঠে আছি।

বাংলাদেশ সময়: ২০০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০২২
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa