ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

উপকূলে ভূমিহীনদের জন্য নির্মাণ হবে বহুতল ভবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২২
উপকূলে ভূমিহীনদের জন্য নির্মাণ হবে বহুতল ভবন

বাগেরহাট: প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া বলেছেন, উপকূলীয় এলাকার ভূমিহীন ও গৃহহীন মানুষদের জন্য বহুতল ভবন নির্মাণ করা করা হবে।

সোমবার ( ১০ জানুয়ারি) বাগেরহাট সদর উপজেলার চুড়ামনি এলাকায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য নির্মাণাধীন ঘর পরিদর্শন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

সচিব বলেন, ইতোমধ্যে ঝড় জলোচ্ছ্বাস, নদী ভাঙ্গনসহ বিভিন্ন কারণে যারা ক্ষতিগ্রস্ত তাদের জন্য কক্সবাজার জেলার খুরুশকুল মৌজায় হাইরাইজ ভবন করা হয়েছে। বরগুনা, পিরোজপুর, পটুয়াখালীসহ উপকূলীয় এলাকায়ও স্থানীয় চাহিদার ভিত্তিতে বহুতল ভবন নির্মাণ করা হবে।

এজন্য সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ও প্রকৌশলীরা চাহিদা দিবেন। আমাদের মূল লক্ষই হচ্ছে যাতে কেউ গৃহহীন না থাকেন। এজন্য যা যা করা প্রয়োজন আমরা এসব ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এসময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহসীন, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মো. ইসমাইল হোসেন, আশ্রয়ণ-২, প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আবু সালেহ মো. ফেরদৌস, বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান, বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোছাব্বেরুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রাশেদুজ্জামান, ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, ফকির ফহম আলী, শামীম হাসান আসনুসহ স্থানীয় ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

পরিদর্শন শেষে আশ্রয়ণ প্রকল্প চত্বরে একটি গাছ রোপণ করেন সিনিয়র সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ‘ক’ শ্রেণির ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য একক গৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় বাগেরহাট সদর উপজেলার চুড়ামনি এলাকায় ৪০টি ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। ৪‘শ বর্গফুটের প্রতিটি ঘর নির্মাণে ২ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা ব্যয় হবে।

এছাড়া মার্চ মাসের মধ্যে খুলনা বিভাগে অন্তত চার হাজার গৃহহীনকে ঘর উপহার দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। উপকারভোগীদের নামে ঘরসহ দুই শতক জমি দলিল করে দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২২
এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa