ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

৫ ফোন ছিনতাই করেও থামেননি, ছয় নম্বরটিতে ধরা!

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২২
৫ ফোন ছিনতাই করেও থামেননি, ছয় নম্বরটিতে ধরা!

রাজশাহী: রাজশাহী মহানগরীর মনি চত্বর এলাকায় ছিনতাইয়ের সময় অমিত হোসেন (২৪) নামে এক ছিনতাইকারীকে হাতে-নাতে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে আটকের আগ মুহূর্তে ছিনতাই করা স্মার্টফোনটি ছাড়াও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আরও পাঁচটি স্মার্টফোন উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মন বাংলানিউজকে বলেন, অমিত চিহ্নিত ছিনতাইকারী। পাঁচটি মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ে পর ছয় নম্বর ফোন ছিনতাইয়ের সময় তিনি পুলিশের কাছে হাতে-নাতে ধরা পড়েন। অমিত রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার দরগাপাড়ার এলাকার আরিফ হোসেনের ছেলে। অমিত নগরের কলোনি রবের মোড় এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।

ওসি আরও বলেন, বুধবার (১২ জানুয়ারি) বিকেলে খোরশেদ আলম (৪০) নামে এক ব্যক্তি নগরের মনিচত্বর মোড়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এ সময় অমিত ও তার সহযোগী মহিদুল ইসলাম (১৯) খোরশেদের গলায় ধারালো অস্ত্র ঠেকিয়ে তার কাছ থাকা স্মার্টফোনটি কেড়ে নেন। এক পর্যায়ে খোরশেদ চিৎকার করলে ছিনতাইকারীরা দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ওই এলাকায় কর্তব্যরত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু হায়দার ও তার টিমের অন্য সদস্যরা তাৎক্ষণিকভাবে অমিতকে আটক করেন। এ সময় পালিয়ে যান অমিতের সহযোগী মহিদুল। পরে অমিতের কাছ থেকে খোরশেদের ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনটি উদ্ধার করা হয়।  

এছাড়াও তার দেহ তল্লাশি করে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আরও পাঁচটি স্মার্টফোন ও ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত দুটি ধারালো অস্ত্র এবং বিভিন্ন সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান ওসি নিবারন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২২
এসএস/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa