ঢাকা, সোমবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

শরীয়তপুরে জমি নিয়ে বিরোধ, যুবককে পিটিয়ে হত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২২
শরীয়তপুরে জমি নিয়ে বিরোধ, যুবককে পিটিয়ে হত্যা

শরীয়তপুর: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিন্টু মাঝি (৩৮) নামের এক যুবককে শাবল দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। এ সময় আরও দুজন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার (১৬ জানুয়ারি) সকালে সখিপুর থানার ডিএমখালী ইউনিয়নের হাওলাদার কান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মিন্টু মাঝি হাওলাদার কান্দি গ্রামের আমান উল্লাহ মাঝির ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন যাবৎ মিন্টু মাঝির ৫৮ শতক জমি নিয়ে প্রতিপক্ষ সুমন হাওলাদারদের (৩৭) বিরোধ চলছিল। কয়েকদিন আগে ওই জমি বেড়া দেয় মিন্টু। রবিবার সকালে সেই বেড়া ভাঙতে যায় সুমন, আরিফ হাওলাদারসহ আরও ১০ জন। এসময় মিন্টু ও তার পরিবার বাঁধা দিলে মিন্টুকে শাবল দিয়ে মাথায় আঘাত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

আহতরা হলেন, মোল্লাকান্দি গ্রামের তাসলিমা বেগম (৪৮) ও রশিদ মাঝি (৩৫)। আহতদের ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে নিহত মিন্টু মাঝির ভাই রশিদ মাঝি বলেন, আমার ভাইকে সুমন হাওলাদাররা শাবল দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান হাওলাদার বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিন্টুকে শাবল দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় দেলোয়ার হাওলাদার, আবুল কালাম ও সুমনের মাকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২২
এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa