ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

ভারত

তপ্ত গরমে ক্লান্ত মমতা, শেষ করলেন দ্বিতীয় ধাপের ভোটের প্রচারণা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
তপ্ত গরমে ক্লান্ত মমতা, শেষ করলেন দ্বিতীয় ধাপের ভোটের প্রচারণা

কলকাতা: গ্রীষ্মের উত্তাপে পুড়ছে বাংলা। পশ্চিম বঙ্গে বুধবার(২৪ এপ্রিল) থেকে শুষ্ক গরম আরও বাড়বে তা আগেই জানিয়েছিল আবহাওয়া দফতর।

তারইমধ্যে ভারতের লোকসভা ভোট। ২৬ এপ্রিল দ্বিতীয় ধাপে ভোট হবে ১৩ রাজ্যে ৮৯ কেন্দ্রে। আজ ছিল দ্বিতীয় ধাপ ভোটের শেষ প্রচার। আর ভোটের প্রচারণায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে শোনা গেল সেই গরম প্রসঙ্গ।

আজ মুখ্যমন্ত্রী শেষ জনসভা করেন রাজ্যের বর্ধমানের আউশগ্রাম এবং গলসিতে। শেষ দিন গরমে নেত্রী ছিলেন যথেষ্ট ক্লান্ত। তা তার চোখে মুখে স্পষ্ট ফুটে উঠেছিল। এদিন আউশগ্রামের সভা সেরে মুখ্যমন্ত্রীর হেলিকপ্টার যখন গলসিতে নামে তখন ঘড়ির কাঁটায় বিকেল প্রায় সাড়ে ৩টা। স্থানীয় তাপমাত্রা ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গুগলের তথ্য মতে, অনুভূত হচ্ছিল ৪৭ ডিগ্রি। আর তাই মাইক হাতে শুরুতেই নেত্রীকে বলতে শোনা গেল, আজকে গরমটা এত বেশি। প্রচণ্ড লু (তাপপ্রবাহ) লেগেছে। বললে বিশ্বাস করবেন না, যে হেলিকপ্টার করে যাতায়াত করি ওটা যেন আগুনের মতো হয়ে থাকে, যেন হিট চেম্বার। শরীরের সব পানি শুকিয়ে গেছে।

বঙ্গে এতটাই তাপপ্রবাহ চলছে যে, ধাতুর ফ্রেমে তৈরি চশমা চোখে রাখা দুস্বাধ্যর বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। তৃণমূল নেত্রীও চোখে ধারণ করতে পারেননি চশমা।  সেই প্রসঙ্গ টেনে মমতা বলেছেন, এতটাই তাপপ্রবাহ বইছে, যা কল্পনা করা যায় না। কিন্তু এত লু বইলেও বিজেপিকে কিন্তু হারাতেই হবে। মমতা আরও বলেন, আর তো একমাস। টেনে দেব, আপনাদের আর্শীবাদ থাকলে বাংলা তো বটেই ভারতবর্ষ থেকেও বিজেপিকে বিদায় দেব।

নেত্রী বলেছেন, ৩১ মার্চ থেকে ভোট প্রচার শুরু করেছি। টানা ২৫ দিন ধরে চষে বেড়াচ্ছি একের পর এক লোকসভা কেন্দ্র। এই প্রসঙ্গে বিজেপি এবং নির্বাচন কমিশনকে আক্রমণ করে মমতা বলেছেন, আগে মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে নির্বাচন শেষ হয়ে ফল ঘোষণা হয়ে যেত। এবারেই প্রথম তিন মাস ধরে ইলেকশন করছে। বিজেপি নির্ঘাত কোনও চক্রান্ত করেছে। তা না হলে জুন মাসের ৪ তারিখ পর্যন্ত কেউ নির্বাচন টেনে নিয়ে যায়? এই গরমে মানুষের কত কষ্ট হয় তা ওরা বোঝে না। যারা বড় নেতা তারা ঠান্ডা ঘরে বসে নির্দেশনা দেয়। আর যারা মাঠে থাকে তার জানে মাটিতা কত গরম। এই গরমে যারা কষ্ট করে এখানে এসেছেন আপনাদের প্রণাম জানাই।

জনসভার উদ্দেশ্যে বলেছেন, ওরা (বিজেপি) দেশকে স্বৈরতন্ত্র বানাতে চাইছে, দেশ বিক্রি করে দিতে চাইছে। মানুষ বিক্রি করে দিতে চাইছে, ধর্ম বিক্রি করে দিতে চাইছে। ওরা সব বিক্রি করে দিতে চাইছে, বিভেদ চাইছে। আপনারা যদি তা না চান। ২৬ এপ্রিল এর প্রতিবাদে তৃণমূলকে ভোট দিন।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপের ভোটের জন্য বুধবার(২৪ এপ্রিল) শেষ হয় রাজনৈতিক দলগুলোর প্রচারাভিযান। ২৬ এপ্রিল দ্বিতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ। এই পর্বে পশ্চিমবঙ্গ সহ ১২ রাজ্য ও একটি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল মিলিয়ে মোট ৮৯ আসনে ভোট নেওয়া হবে। এরমধ্যে রয়েছে মণিপুর, কেরলের ২০ আসনের সবকটি, কর্ণাটকে ১৪, রাজস্থানে ১৩, উত্তরপ্রদেশ ও মহারাষ্ট্রে ৮টি করে, মধ্যপ্রদেশে ৭, আসাম ও বিহারে ৫টি করে, পশ্চিমবঙ্গ ও ছত্তিশগড়ে ৩ কেন্দ্রে এবং ত্রিপুরা ও জম্মু-কাশ্মীরে ১ আসন হবে ভোটগ্রহণ।

বঙ্গে ৩ কেন্দ্রে ভোট রয়েছে। দার্জিলিং, রায়গঞ্জ, বালুরঘাটে। ভারতে ১৯ এপ্রিল হয়েছে প্রথম ধাপের ভোট। এবার লোকসভা নির্বাচন হবে সাত ধাপে। চলবে প্রায় দুই মাস ধরে। ভোট পর্ব শেষ হবে ১ জুন। ৪ জুন ভোটের ফল ঘোষণা।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৪ ঘণ্টা, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
ভিএস/এমএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।