ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

মসজিদের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মুসল্লিদের মানববন্ধন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০২৩
মসজিদের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মুসল্লিদের মানববন্ধন

ঢাকা: তেজগাঁওয়ে একটি মসজিদের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী ও মুসল্লিরা।

সোমবার (০৯ জানুয়ারি) তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানাধীন জিএমজি মোড় কুনিপাড়া জামে মসজিদের মুসল্লিরা মসজিদ প্রাঙ্গণে এ কর্মসূচির আয়োজন করেন।

মানববন্ধনে এলাকাবাসীর পক্ষে থেকে লিখিত বক্তব্য রাখেন ওবায়দুর রহমান শ্যামল। তিনি বলেন, অবৈধ শক্তিধর মোহাম্মদ নাজমুল হাসান পলাশ গত ১২ বছর যাবৎ জোরপূর্বক অবৈধভাবে এই মসজিদের স্বঘোষিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ দখল করে রেখেছেন। তিনি মসজিদের নতুন কমিটি করার সুযোগ দিচ্ছেন না। কেউ কমিটি করতে গেলে তাদের বাধা দিচ্ছেন ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছেন। মসজিদের একটি মাত্র দোকানের ভাড়া থেকে ইমাম সাহেব ও খাদেমসহ আনুষঙ্গিক খরচ বহন করা হতো। কিন্তু পলাশ জোর করে গত ১৪ বছরের বেশি সময় ধরে দোকানের ভাড়া আত্মসাৎ করে যাচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলার সাহস পাচ্ছে না, কারণ তার রয়েছে পালিত অস্ত্রধারী ক্যাডার বাহিনী।

ওবায়দুর রহমান বলেন, মসজিদের জায়গায় ওঠানো চারটি বিলবোর্ডের মোট ভাড়া ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা, যা পলাশ জোরপূর্বক আত্মসাৎ করেছেন। এর ফলে মসজিদের ঈমাম ও খাদেমের প্রতিমাসের বেতন দিতে মুসল্লিদের নানা সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। মসজিদের দোকানের ভাড়া দিয়েই অনায়াসে ইমাম সাহেবের বেতনসহ আনুষঙ্গিক খরচ চালানো সম্ভব। পলাশের ঘৃণ্য কাজের কারণে মসজিদের উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে না। মসজিদের উন্নয়ন কাজে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে  পলাশ তাদের প্রাণনাশের হুমকি দেন। শুধু তাই নয়, উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সরকারি রাস্তা দখল করে অবৈধ হোটেল, দোকান, ক্লাবঘরসহ নানা স্থাপনা তৈরি করে অবৈধভাবে লাখ লাখ টাকা উপার্জন করছেন তিনি।

অন্যান্য বক্তারা বলেন, আজ আমরা এলাকাবাসী ও মসজিদের মুসল্লিরা পলাশের হাত থেকে মসজিদসহ এলাকাবাসীকে রক্ষা করার জন্য জীবন বাজি রেখে রাস্তায় দাঁড়িয়েছি। এলাকাবাসী ও মসজিদের মুসল্লিরা মানববন্ধনের মাধ্যমে প্রশাসন ও রাজনৈতিক নেতাদের সাহায্য কামনা করছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০২৩
ডিএইচবি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।