ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

প্রশাসনের সহায়তায় যৌতুক ছাড়াই বিয়ে করলেন আলোচিত বর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২৩
প্রশাসনের সহায়তায় যৌতুক ছাড়াই বিয়ে করলেন আলোচিত বর

নেত্রকোনা: জেলার কলমাকান্দায় যৌতুকের টাকা না পাওয়ায় ৪০ জন বরযাত্রী নিয়ে খাওয়া-দাওয়া শেষে বিয়ের আসর থেকে চলে যান বর। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বেশ আলোচিত ও সমালোচিত হয়।

আলোচিত এই বর ছিলেন উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের বামনগাঁও গ্রামের মো. শরীফ মিয়ার ছেলে মো. হাসেন মিয়া (২৫)।

এ ঘটনায় গত শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে ভুক্তভোগী কনের বাবা বাদী হয়ে বর ও বরের বাবাসহ তিনজনকে অভিযুক্ত করে কলমাকান্দা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে রংছাতি ইউনিয়নের বটতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় এক সপ্তাহ আগে বামনগাঁও গ্রামের মো. হাসেন মিয়ার বিয়ে ঠিক হয় পার্শ্ববর্তী রংছাতি ইউনিয়নের বটতলা গ্রামের এক তরুণীর সঙ্গে। বিয়ে ঠিক হওয়ার সময় কনের বাবা বিয়ের খরচ বাবদ বরের পরিবারকে ৪০ হাজার টাকা দেন। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে এ বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। ঠিক সময়মতো বর তার আত্মীয়-স্বজনসহ ৪০ জন বরযাত্রী নিয়ে আসেন। খাওয়া-দাওয়া শেষে বিয়ের কার্যক্রম শুরু হলে বরের পক্ষ থেকে আরও ৭০ হাজার টাকা যৌতুক চাওয়া হয়। কনের পরিবার যৌতুকের টাকা দিতে রাজি না হলে বিয়ের আসর থেকে বরের লোকজন বরকে নিয়ে চলে যান।

জানতে চাইলে অভিযুক্তদের একজন সবুজ মিয়া মুঠোফোনে বলেন, দুপুরে বাড়িতে পুলিশ এসেছিল। তাদের কথামতো বর ও কনের পক্ষের লোকজনের মধ্যে সমঝোতা হয়। শুক্রবার রাতে বরকে নিয়ে বিয়ে করাতে কনের বাড়িতে যান এবং সেখানেই উভয় পক্ষের সম্মতিতে এলাকার গণ্যমান্য ও প্রশাসনের উপস্থিতে বিয়ে পড়ানো হয়। বিয়ের পরপরেই বর কনেকে নিয়ে ঢাকায় তার কর্মস্থলে চলে যান।

কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম জানান, শুক্রবার রাতে কনের বাড়িতে বরকে ডেকে এনে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যস্থতায় দুই লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে স্থানীয় কাজির মাধ্যমে বিয়ে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০১৪৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২৩
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।